Ultimate magazine theme for WordPress.

ঘুরে আসুন লাতিন আমেরিকা

0

আমোদপ্রমোদের জন্য ভ্রমণ উপকারী। ভ্রমণপ্রিয় মানুষমাত্রই পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে থাকেন। পৃথিবীর ৭ মহাদেশের মধ্যে লাতিন আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশ রয়েছে যেসব দেশকে পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয়। ২০টি দেশ নিয়ে গঠিত মহাদেশটি ভৌগোলিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ।

লাতিন আমেরিকার এসব দেশ সম্পর্কে আসুন জেনে নেয়া যাক-

১. পানামা

পানামার মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয় খুব সস্তা, স্বাস্থ্যসেবায় উন্নত এবং পর্যটকদের জন্য রয়েছে অসংখ্য দর্শনীয় স্থান। আধুনিক আভিজাত্যে পরিপূর্ণ ভবনসহ অনেকগুলো রেস্তোরাঁ রয়েছে। পর্যটকদের কাছে দর্শনীয় স্থানের কারণে দেশটি বিখ্যাত। এটি লাতিন আমেরিকার একটি মনোমুগ্ধকর দেশ।

২. ইকুয়েডর

লাতিন আমেরিকার দ্বিতীয় মনোমুগ্ধকর দেশের নাম ইকুয়েডর। দেশটির আবহাওয়া ও জলবায়ু স্বাভাবিক। দেশটি দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে অবস্থিত। পর্যটকদের কাছে এটি অত্যন্ত পছন্দের স্থান।

৩. মেক্সিকো

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মেক্সিকোর সীমান্ত শহরে মাদক ও গ্যাসকে কেন্দ্র করে সহিংসতার কারণে মানুষের কাছে নেতিবাচকভাবে পরিচিত। তবে এখানে অনেক ভালো দর্শনীয় স্থান রয়েছে। মায়ান পিরামিড এখানকার সবচেয়ে বড় দর্শনীয় স্থান।

৪. কোস্টারিকা

পর্যটকদের কাছে কোস্টারিকা মনোমুগ্ধকর একটি দেশ। দেশটির রাজধানী সান জোস। কোস্টারিকা অনেক বছরের পুরনো দেশ হলেও এটি একটি পরিচ্ছন্ন দেশ। এই কারণে ভ্রমণেচ্ছু মানুষের ভ্রমণের তালিকায় সবার আগে স্থান থাকে দেশটির।

৫. কলম্বিয়া

কলম্বিয়ার মানুষ শান্তিকামী। দেশটির শান্তিপূর্ণ অবস্থান বিশ্বের মানুষের কাছে প্রশংসনীয়। দর্শনার্থীরা পরিচ্ছন্ন দেশটি দেখার জন্য ভ্রমণ করে থাকেন। তবে কারতাগেনা, বগোতা ও মেদেলিনসহ অন্যান্য কয়েকটি শহরকে আন্তর্জাতিক পরিসরে মাদক বাণিজ্যের জন্য অনেকে চিনে থাকে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »