Ultimate magazine theme for WordPress.

ঘুরে আসুন পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে আমেরিকার অন্যতম বড় শহর ফিলাডেলফিয়া।

0

পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে আমেরিকার অন্যতম বড় শহর হল ফিলাডেলফিয়া, যা ‘ফিলি’ নামেও পরিচিত। ফিলাডেলফিয়া শহর থেকে আমেরিকার স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়। ১৬৮২ সালে উইলিয়াম পেন ফিলাডেলফিয়া শহর আবিষ্কার করেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় ফিলাডেলফিয়ায় অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা সংঘটিত হয়। যার মধ্যে লিবার্টি বেল সংরক্ষণ, জার্মান টাউন যুদ্ধ অন্যতম। এসব কারণেই ফিলাডেলফিয়া আমেরিকার অন্যতম ঐতিহাসিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক শহর। যে কারণেই ভ্রমণ পিপাসুদের অন্যতম পছন্দের জায়গা হল ফিলাডেলফিয়া।
একদিনেই ফিলাডেলফিয়া শহর মোটামুটিভাবে কীভাবে ঘুরে দেখা যায়, তা নিয়ে এই লেখা। ফিলাডেলফিয়া শহরে পা রাখার পর বেশ চিন্তিত ছিলাম, কীভাবে শহর ঘুরে দেখা যায় আর একদিনে শহরের কতটুকু দেখা যায়। এ নিয়ে চিন্তা করতে করতে হঠাৎ চোখে পড়ল ‘সিটি বাস ট্যুর’ নামে লাল রঙের ডাবল ডেকার বাসের ওপর। কাছে গিয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারলাম, মাত্র ৩৫ ডলারের বিনিময়ে এরা সারা দিন ফিলাডেলফিয়া শহরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক নিদর্শন ঘুরে দেখাবে। আর তাই চিন্তা না করেই টিকিট করে ফেললাম। পরে জানতে পারলাম, এ সিটি বাস ট্যুর আমেরিকার আরও অন্যান্য শহরের পাশাপাশি বিশ্বের অনেক দেশেই প্রচলিত, যারা এভাবে আমার মত চিন্তিত ভ্রমণকারীদের অপরিচিত শহর ঘুরে দেখাতে সাহায্য করে। টিকিটের মেয়াদ ছিল ওই পুরোদিন।

এবার দেখে নেওয়া যাক, ফিলাডেলফিয়া শহরের ভেতর একদিনেই কী কী ঐতিহাসিক জায়গা ভ্রমণ করা যাবে।

১. লিবার্টি বেল ২. ইন্ডিপেন্ডেন্স হল ৩. সিটি হল ৪. ন্যাশনাল লিবার্টি জাদুঘর ৫. বেটসি রোজ হাউস ৬. চায়নাটাউন ৭. ন্যাশনাল কনস্টিটিউশন সেন্টার ৮. হার্ড রক ক্যাফে ৯. রিডিং টার্মিনাল মার্কেট ১০. লাভ পার্ক ১১. লগান সার্কেল ১২. রোডিন জাদুঘর ১৩. ফিলাডেলফিয়া চিড়িয়াখানা ১৪. সাহিত্য জাদুঘর ১৫. রকি স্টেপস অ্যান্ড স্ট্যাচু ১৬. ফ্রাঙ্কলিন ইনস্টিটিউট ১৭. রিটেনহাউজ স্কয়ার ১৮. ভিয়েতনাম অ্যান্ড কোরিয়ান ওয়ার মেমোরিয়াল ১৯. সোসাইটি হিল নেইভারহুড ২০. ওয়ান লিবার্টি অবজারভেশন ডেক ইত্যাদি।

অভাবনীয় হলেও সত্যি, ওপরে বর্ণিত সব জায়গা একদিনেই ভ্রমণ করা সম্ভব। নিজস্ব গাড়ি, স্থানীয় বাস/ট্রেন/ট্যাক্সি অথবা আমার মত সিটি বাস ট্যুরে করে এসব জায়গা ঘুরে দেখা সম্ভব। সিটি বাস ট্যুরের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, যেকোনো দর্শনীয় স্থানে নেমে ইচ্ছামতো উপভোগ করা যায়। আবার পরবর্তীতে অন্য বাসে করে অন্যান্য জায়গা ঘুরে দেখা যাবে। একদিনের মধ্যেই ওপরে বর্ণিত দর্শনীয় স্থানগুলো ছাড়াও অন্যান্য জায়গাও ভালোভাবে ঘুরে দেখা সম্ভব।
তাই আর দেরি কেন? ঘুরে আসুন আমেরিকার অন্যতম ঐতিহাসিক শহর ফিলাডেলফিয়া।

সুত্র – প্রথম আলো

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »