Ultimate magazine theme for WordPress.

অনিশ্চয়তা সংগী করে ৪৪ বছরে পা রাখলো বিএনপি

0

এক যুগের বেশি সময় ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি প্রতিষ্ঠার ৪৪ বছরে পা দিলো। এমন এক সময়ে বিএনপি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে, যখন দলের চেয়ারপারসন রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের বাইরে। কারাদণ্ড, মামলার জটিলতা এবং শারীরিক অবস্থা সামলে তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার সুযোগ পাবেন কি না, তা নিয়ে সন্দিগ্ধ দলের নেতা-কর্মীরা। অন্যদিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বিদেশে অবস্থান করছেন। তিনি কবে দেশে ফিরতে পারবেন, তা কেউ জানেন না।

দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকা দলটি পুনরায় রাষ্ট্রক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখলেও মাঠের আন্দোলনে কার্যকর শক্তি প্রদর্শন করতে পারেনি কিংবা ২০১৮-এর নির্বাচনে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারেনি। এমন পরিস্থিতিতেও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর প্রাক্কালে বিএনপি’র নেতারা দল সুসংগঠিত করে জনগণকে সংগে নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে কার্যকর আন্দোলন গড়ে তোলার ব্যাপারে আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। ২০২৩ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যেও জোরালো হয়ে উঠছে এই দাবি।

বিএনপি অন্য সময়ের তুলনায় বেশি শক্তিশালী, দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই দীর্ঘ পথে বিএনপিকে অনেক বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করতে হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র হয়েছে, এখনো হচ্ছে। নিশ্চিহ্ন করার চেষ্টা যতোই করা হোক না কেন, বিএনপি ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠবে।

সাংগঠনিক অবস্থাঃ

দেশব্যাপী বিএনপি’র সাংগঠনিক ইউনিট রয়েছে ৮১টি। দীর্ঘ সময় ধরে বেশিরভাগ সাংগঠনিক ইউনিট মেয়াদোত্তীর্ণ। সম্প্রতি ঢাকা মহানগরের দু’টি এবং মুন্সিগঞ্জ জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এর আগে মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর এবং শেরপুর জেলা কমিটি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাকি ৭২টি পূর্ণাঙ্গ কমিটির মেয়াদ ফুরিয়েছে ইতিমধ্যে।

২০১৪ ও ২০১৬ সালের ঘোষিত আহ্বায়ক কমিটি এবং ১০ বছর আগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিও বহাল আছে এখনও। ফরিদপুর, মাদারীপুর ও লক্ষ্মীপুর জেলায় দেড় বছর ধরে কোনো কমিটিই নেই। এভাবেই চলছে বিএনপি’র সাংগঠনিক ইউনিটগুলো। অথচ ২০১৯ সালে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেশব্যাপী মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলো দ্রুত গঠনের লক্ষ্যে সাংগঠনিক সম্পাদকদের রিপোর্ট দিতে বলেছিলেন।

খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মঞ্জু বাংলাভিশন ডিজিটালকে বলেন,ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশে আমরা কাজ শুরু করেছিলাম। তিনটি কারণে তা একটু থমকে গেছে। প্রথমত, করোনা। দ্বিতীয়ত, পৌর ও ইউপি নির্বাচন। তৃতীয়ত, প্রশাসনের অসহযোগিতা। তবে এখন কমিটি নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে।

বিএনপির অন্য একটি সূত্র জানায়, জেলার সাংগঠনিক প্রতিবেদন সংগ্রহে ১৭ আগস্ট থেকে ধারাবাহিক বৈঠক শুরু করেছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। লক্ষ্মীপুর, মাদারীপুর ও ফরিদপুর জেলা বাদে ৭৮ সাংগঠনিক জেলার সংগেই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

বিএনপির কূটনীতিঃ

বিভিন্ন দেশের সংগে কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে বছরখানেক ধরে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে বিএনপি। প্রভাবশালী দেশগুলোর সংগে সম্পর্ক নতুন মাত্রায় নিয়ে যেতে গ্রহণ করা হয়েছে নানান উদ্যোগ। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানও লন্ডন থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করতে সচেষ্ট রয়েছেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, দলের পক্ষে কাজ করা দক্ষ কূটনীতিক রিয়াজ রহমানের ওপর হামলার মধ্য দিয়ে বিএনপি’র কূটনৈতিক উইংয়ে বড় ধরনের ধাক্কা লাগে। এরপর গ্রেফতার হন দলের আরেক কূটনীতিক শমসের মবিন চৌধুরী। একপর্যায়ে শারীরিক অসুস্থতা দেখিয়ে দলও ছাড়েন তিনি। পরে যোগ দেন বি. চৌধুরীর সংগে। তাঁর দল ছাড়ার পর কূটনৈতিক উইংয়ে বিরাট শূন্যতা সৃষ্টি হয়।

বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান ড. এম ওসমান ফারুকের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের তদন্ত শুরু হতেই তিনি পাড়ি জমান বিদেশে। এই মুহূর্তে তাঁর দেশে ফেরার সম্ভাবনা খুব কম। আরেক কূটনীতিক নেতা সাবিহ উদ্দিন আহমেদের গাড়ি গুলশানে জ্বালিয়ে দেওয়ার পর তিনিও এখন অনেক সতর্ক। এভাবেই বিএনপি’র কূটনৈতিক উইং ক্রমশঃ দুর্বল হয়ে পড়েছে।

এই উই য়ের একটি সূত্র জানায়, বহির্বিশ্বের সংগে বিএনপি’র সম্পর্কোন্নয়নে অভিজ্ঞ সিনিয়র নেতাদের পাশাপাশি তরুণরাও ভূমিকা রাখছেন। বিশেষ করে চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলোর সংগে দলটির সুসম্পর্ক রক্ষায় তরুণদের ভূমিকা অগ্রগণ্য হয়ের উঠছে।

দলটির কূটনৈতিক উইংয়ের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। জানা গেছে, তাঁর মাধ্যমে ভারতের সংগে সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করছে দলটি। মধ্যপ্রাচ্যে, বিশেষ করে সৌদি আরবের সংগে সুসম্পর্কের ক্ষেত্রে বেগম খালেদা জিয়া’র ব্যক্তিগত ভূমিকা বরাবরই স্বীকৃত। সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রিয়াজ রহমান ফরেইন উইংয়ের প্রতিটি বৈঠকে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেন। চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ, সাবেক রাষ্ট্রদূত সিরাজুল ইসলাম নিয়মিত যুক্ত থাকেন।

এছাড়া চীনের সংগে সম্পর্কের বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে দেখেছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক সেনাপ্রধান মাহবুবুর রহমান ও ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। অসুস্থতার কারণে দল থেকে পদত্যাগ করেছেন মাহবুবুর রহমান।

এছাড়া স্থায়ী কিমিটর সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আওয়াল মিন্টু, বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, আন্তর্জাতিক সম্পাদক এহছানুল হক মিলন, মাহিদুর রহমান, ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন অসীম, ব্যারিস্টার নওশাদ জমির, জেবা খান, ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি’র সিনিয়র সদস্য তাবিথ আওয়াল, দক্ষিণের সিনিয়র সদস্য ইশরাক হোসেনসহ আরও কয়েকজন কূটনৈতিক বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছেন।

বিএনপি’র একটি সূত্র জানিয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে শুধু আন্দোলনের মাধ্যমেই নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায় করা কঠিন। এজন্য বহিঃর্বিশ্বের সমর্থন প্রয়োজন। দু’টি ফোর্স এক হলেই একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন আদায় করা সম্ভব হবে।

সাংগঠনিক সম্পাদক ও আন্তর্জাতিক উইংয়ের সদস্য শামা ওবায়েদ বলেন, বিএনপি কূটনৈতিক পলিসিতে কোনো দেশের সংগে বৈরিতা নয়, সবার সংগে ভালো সম্পর্কের নীতি নিয়ে চলছে। কোন দেশের সংগে কী আলোচনা হয় বা হচ্ছে, তা নিশ্চয়ই বলবো না। তবে বিএনপি কাজ করে যাচ্ছে। সময়ের ভিন্নতায় কৌশল পরিবর্তন হয় বা হতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »