Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলে গ্রিক রাষ্ট্রদূতকে হত্যা, স্ত্রীর কারাদণ্ড

0

ব্রাজিলে নিযুক্ত সাবেক গ্রিক রাষ্ট্রদূত কিরিয়াকোস আমিরিডিসকে নৃশংসভাবে হত্যার পরিকল্পনায় যুক্ত থাকার অপরাধে তার স্ত্রী ফ্রাঙ্কুইস ডি সুজা অলিভিয়েরাকে ৩১ বছর কারাবাসের আদেশ দিয়েছেন দেশটির আদালত। স্থানীয় সময় রোববার এই দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

২০১৬ সালে ব্রাজিলের বৃহত্তম শহর রিও ডি জেনেরিওর একটি ফ্লাইওভারের নিচে পরিত্যাক্ত এক গাড়ি থেকে কিরিয়াকোস আমিরিডিসের দগ্ধ দেহাবশেষ উদ্ধার হয়। পরে এই ঘটনার তদন্তে জানা যায়, স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের বলী হয়েছেন ব্রাজিলে গ্রিসের দূতাবাসের এই কর্মকর্তা।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে, ২০০১ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত  ব্রাজিলে গ্রিসের বাণিজ্যদূত (কনসাল) হিসেবে কাজ করেছেন কিরিয়াকোস আমিরিডিস। তারপর ব্রাজিল থেকে নিজ দেশে ফিরে যান তিনি।

যে বছর তিনি নিহত হন, সেই ২০১৬ সালে পূর্ণাঙ্গ রাষ্ট্রদূত হিসেবে ফের ব্রাজিলে এসেছিলেন আমিরিডিস।

গ্রিসের বাণিজ্যদূতে পদে থাকা অবস্থায় অলিভিয়েরার সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল আমিরিডিসের। ২০০৪ সালে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এই দম্পতির এক কন্যাসন্তান আছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৬ সালে বড় দিনের ছুটি কাটাতে রাজধানী ব্রাসিলিয়া থেকে নোভা ইগুয়াকু শহরে গিয়েছিলেন ৫৯ বছর বয়সী আমিরিডিস। ওই শহরে তার স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির আত্মীয়-স্বজনরা থাকেন।

তিনি নোভা ইগুয়াকু যাওয়ার দু’দিন পরই অলিভিয়েরা স্থানীয় পুলিশ স্টেশনকে জানান, তার স্বামী কাউকে কিছু না বলে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে গেছেন, বের হওয়ার সময় তার নিজের গাড়িটিও সঙ্গে নেননি তিনি।

পরের দিন নোভা ইগুয়াকুর পার্শ্ববর্তী শহর রিও ডি জেনেরিওর একটি ফ্লাই ওভারের নিচে পরিত্যাক্ত একটি গাড়িতে আমিরিডিসের দগ্ধ দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়।

তবে ঘটনার তদন্তে জানা গেছে, আমিরিডিসকে হত্যা করা হয়েছিল ফ্ল্যাটে থাকা অবস্থাতেই। নোভা ইগুয়াকুর যে ফ্ল্যাটে এই দম্পতি থাকতেন, সেখানকার সোফায় আমিরিডিসের রক্তের দাগ পাওয়া গেছে।

তদন্তে আরো জানা যায়, ব্রাজিলের সেনা পুলিশ কর্মকর্তা সার্জিও গোমেসের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন অলিভিয়েরা। তার পরামর্শ ও সহযোগিতাতেই ওই দম্পতির ফ্ল্যাটে আমিরিডিসকে খুন করেন গোমেস।

আদালতে ইতোমধ্যে গোমেস নিজের অপরাধ স্বীকার করেছেন এবং আদালত তাকে ২২ বছর কারাবাসের সাজা দিয়েছেন। এই মামলার অপর আসামি এদোয়ার্দো মোরেইরা টেডেসি ডি মেলোকে হত্যা ও লাশ লুকাতে সহযোগিতা করার অপরাধে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রোববার অলিভিয়েরাকে কারাদণ্ড দেওয়ার মাধ্যমে এই মামলার নিষ্পত্তি টানেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় এই ঘটনাকে ‘পাশবিক’ বলে উল্লেখ করেছেন বিচারক।

সূত্র : বিবিসি

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »