Ultimate magazine theme for WordPress.

নাইজেরিয়ায় প্রেসিডেন্টের ছেলের বিয়েতে বিমানের ছড়াছড়ি

0

নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলের কানো রাজ্যে সাজ সাজ রব। হবে নাই–বা কেন? প্রেসিডেন্টের ছেলের বিয়ে বলে কথা! তা–ও আবার দেশটির অন্যতম প্রধান ধর্মীয় নেতার মেয়ের সঙ্গে। বিয়ে উপলক্ষে কানোর বিমানবন্দরে নামছে একের পর এক ব্যক্তিগত বিমান। দেশটির অভিজাত নেতা ও পশ্চিম আফ্রিকার উচ্চপদস্থ ব্যক্তিরা এসব বিমানে বিয়েতে অতিথি হিসেবে আসছেন। খবর বিবিসির।

নাইজেরিয়ায় এ বছরের আলোচিত ঘটনা হলো, প্রেসিডেন্টের ছেলে ইউসুফ বুহারি ও জাহরা নাসির বায়েরোর বিয়ে। এমির অব বিচি প্যালেসে এই বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নেন কয়েক হাজার মানুষ। ইউসুফ ও জাহরার দেখা হয় যুক্তরাজ্যের সারে ইউনিভার্সিটিতে।

স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার বিয়ের এ অনুষ্ঠান চলে। কনের বাবা নাসির আডো বায়েরো রাজপরিবারের সম্মানীয়। তাঁর ভাই নাইজেরিয়ার অন্যতম ইসলামিক নেতা।
বরের পরিবার কনের পরিবারকে পাঁচ লাখ নাইরা দিয়েছে। নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলে সাধারণত বিয়েতে বর যে পরিমাণ অর্থ পরিশোধ করেন, এই অর্থের পরিমাণ তার চেয়ে ১০ গুণ বেশি।

অবশ্য বিয়ের আগেই কনে জাহরা নাসির বায়েরোর একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিতর্কের সৃষ্টি করে। অনেকেই তাঁর পোশাক নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। আবার অনেকে তাঁর পোশাককে সমর্থন করেন।

বিমানবন্দরের একজন কর্মকর্তা বিবিসিকে জানান, বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রায় অর্ধশত অতিথি ব্যক্তিগত বিমানে আসেন।

তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে বিয়ের অনুষ্ঠানের আতিশয্য খুব বেশি কমানো হয়নি। বেশির ভাগ অতিথিই মাস্ক পরেছিলেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে নিরাপত্তাব্যবস্থা ছিল কড়া। পুলিশ ও সামরিক কর্মকর্তারা প্যালেসটি ঘিরে রেখেছেন। বিয়ের অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করছেন যোগাযোগমন্ত্রী ইমাম ইসা আলী পানতামি।

বিয়ের অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শীর্ষ রাজনীতিবিদ, বিভিন্ন অঞ্চলের প্রশাসক, বিরোধী নেতারা যোগ দেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুশারির পূর্বসূরি গুডলাক জোনাথন। ২০১৫ সালের নির্বাচনে বুশারি তাঁকে পরাজিত করেন।

বিদেশি অতিথিদের মধ্যে ছিলেন গাম্বিয়ার ফার্স্ট লেডি ফাতৌমাতা বাহ ব্যারো ও প্রতিবেশী দেশ নাইজারের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু ইসোউফু।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »