Ultimate magazine theme for WordPress.

মাদক পাচারের দায়ে চীনে কানাডার নাগরিকের মৃত্যুদণ্ড বহাল

0

চীনে মাদক চোরাচালানের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কানাডীয় নাগরিক রবার্ট লয়েড শেলেনবার্গ আপিলে হেরেছেন। আপিল আদালত বলেছে, শেলেনবার্গের বিরুদ্ধে ‘যথেষ্ট’ প্রমাণ হাজির থাকায় মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখা হয়েছে। বিবিসির খবরে এমনটি জানানো হয়েছে।

প্রথমে রবার্ট লয়েড শেলেনবার্গকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়, কিন্তু ২০১৯ সালে একটি আপিল আদালত পুনরায় বিচার করে তার লঘুশাস্তি হয়েছে উল্লেখ করে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয়।

চীনে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত ডোমিনিক বারটন মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পর বলেন, কানাডা থেকে হুয়াওয়ে’র জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মেং ওয়ানজুকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে চলমান প্রচেষ্টার মাঝেই এই রায় প্রকাশ হয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় চীনের টেলিকম কোম্পানি হুয়াওয়ের প্রতিষ্ঠাতার মেয়ে মেং ওয়ানজু কানাডায় বন্দি রয়েছেন।

এ বিষয়ে চীন ‘শত্রুভাবাপন্ন’ কূটনৈতিক আচরণ করে আসছে বলে অভিযোগ করে আসছে কানাডা। যদিও বেইজিং বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

চীন থেকে অস্ট্রেলিয়ায় ২২৭ কেজি মাদক চোরাচালানের পরিকল্পনার অভিযোগে ২০১৪ সালে আটক হন কানাডীয় নাগরিক রবার্ট লয়েড শেলেনবার্গ। যদিও তিনি এ অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং জানান, তিনি চীনে পর্যটক হিসেবে গিয়েছেন।

২০১৮ সালের নভেম্বরে শেলেনবার্গকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »