Ultimate magazine theme for WordPress.

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের বিকৃত ভাস্কর্য উদ্বোধন!

0

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম্রকাননে ঘেরা সার্কিট হাউসের সামনে বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের একটি ভাস্কর্য ও স্মৃতিফলক উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (২ আগস্ট) সকালে ভাস্কর্য ও ফলকের উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. মো. হুমায়ুন কবীর। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাস্কর্য উদ্বোধনের ছবি শেয়ার হতেই প্রতিবাদে সরব হয়ে ওঠেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সাধারণ জনগণ। বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের মুখাবয়বের সাথে ভাস্কর্যের বিন্দুমাত্র মিল খুঁজে পাননি কেউই। এই বিকৃত ভাস্কর্যে আবার যুক্ত করা হয়েছে গালভর্তি চাপ দাড়ি! অথচ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বিভিন্ন নথিপত্র এবং সামরিক বাহিনীর ফাইলে সংরক্ষিত ছবির কোথাও এমন চেহারায় দেখা যায়নি এই বীরকে! একজন বীরশ্রেষ্ঠ তথা জাতির সূর্যসন্তানের মুখাবয়ব বিকৃতি করার এমন ধৃষ্ঠতা যারা দেখিয়েছে, তাদের বিচার দাবি করেছেন সাধারণ মানুষ। একে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি এবং পরবর্তী প্রজন্মের কাছে একজন বীরশ্রেষ্ঠ’র ভুল ছবি ছড়িয়ে দেয়ার অপচেষ্টা দাবি করে এই ভাস্কর্য নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্টদের যথাযথ বিচার দাবি করেছেন ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা। পাশাপাশি দ্রুত এই ভাস্কর্য অপসারণ করে একটি যথাযথ ভাস্কর্য পুনঃ স্থাপনের দাবিও জানিয়েছেন তারা। উল্লেখ্য, এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সরকারের উর্ধ্বতন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ। কিন্তু কেউই বিকৃতি নিয়ে কোনো শব্দ করেননি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপস্থিত কর্মকর্তাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. মঞ্জুরুল হাফিজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দেবেন্দ্র নাথ উরাও, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জাকিউল ইসলাম, পৌরসভা মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম। আরও উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইফফাত জাহান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আনিসুর রহমান, পৌরসভার প্যানেল মেয়র-৩ মুসলেমা বেগম মুসি, ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াউর রহমান আরমানসহ জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও গণমাধ্যমকর্মীরা। প্রসঙ্গত, জেলা প্রশাসন চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্যোগে জেলার ইতিহাসে সর্বপ্রথম আবক্ষ ভাস্কর্য বলা হচ্ছে এই বিকৃত ভাস্কর্যকে। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে সুদক্ষ নেতৃত্ব এবং অদম্য সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর। তাঁর অসামান্য ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে সার্কিট হাউজ সংলগ্ন সড়ককে বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক নামকরণ করা হয় এবং প্রবেশপথে এই স্মৃতিফলক স্থাপন করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »