Ultimate magazine theme for WordPress.

মালয়েশিয়ায় ব্যবসায়ীর ১৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নিল প্রবাসীরা

0

মালয়েশিয়ায় ব্যবসায়ীর ১৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নিল প্রবাসী বাংলাদেশিরা। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর  বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এলমা সার্ভিসের প্রায় ৮৩ হাজার রিংগিতে বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৬ লাখেরও বেশি টাকা বকেয়া পরিশোধ না করে প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রাহক এখন গা-ঢাকা দিয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশ ক্রেতাই বাংলাদেশি। এছাড়া নেপাল এবং পাকিস্তানি প্রবাসীও রয়েছেন। এ ঘটনায় কুয়ালালামপুরে বালাই পুলিশের কাছে অভিযোগ দেয়া হয়েছে। বকেয়া টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য এবং গ্রাহকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে এলমা সার্ভিসের স্বত্বাধিকারী মো. ইব্রাহিম মিয়া ও ম্যানেজার মালয়েশিয়ান নাগরিক নন্দ কুমার কুয়ালালামপুরের ব্যবসায়িক কার্যালয়ে শুক্রবার রাত ৮টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন। এ সময় নন্দ কুমার বলেন, ২০১৭ সাল থেকে এলমা সার্ভিস রাজধানীর আমপাং এ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রীর মুদির দোকান পরিচালনা করে আসছেন।  প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী দাউদকান্দির ইব্রাহিম মিয়া জানান,  ২০১৭ সাল থেকে আমার ব্যবসা শুরু করি। ২১০৯ থেকে প্রবাসীদের মাঝে বাকি দেওয়া শুরু করি তারপর থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ২ বছরের ৮৩ হাজার রিংগিত বাকি পড়ে যায়।

এ সময় প্রায় অর্ধশতাধিক ক্রেতা বিভিন্ন সময়ে বকেয়া নিয়ে সেটা পরিশোধ না করেই তারা আত্মগোপন চলে যান। আমি তাদের সাথে যোগাযোগ করেও ব্যর্থ হয়েছি এবং এতদিন ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করে পুলিশ রিপোর্ট করে মিডিয়ার মাধ্যমে তাদের অবহিত করে আমার পাওনা টাকা ফেরত দেওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

প্রবাসী ফজলুল হক জানান, মুদি দোকানের ব্যবসা করতে গিয়ে বাকি দিতেই হয়।  আর সেটা করতে গিয়ে সে ৮৩ হাজার রিংগিত এখন হারাতে বসেছে। প্রবাসীরা কুয়ালালামপুরে একসাথে ১০ জন ২০ জন করে ম্যাচে খাবার খায়। এভাবে জিনিসপত্র নিয়ে মাস শেষে বেতন পেয়ে টাকা পরিশোধ করে দেয়।  একটা সময় যখন বিল বেশি হয়ে যায় তখন টাকা পরিশোধ না করেই পালিয়ে যায়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »