Ultimate magazine theme for WordPress.

সিডনিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

0

অস্ট্রেলিয়ায় নিজের রূপ দ্রুত দেখাতে শুরু করেছে করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট। এর মধ্যে নিউ সাউথ ওয়েলসে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ৩৮ জন। সেখানে আগেরদিনে শনাক্ত ছিলো ২৭ জন। আজকের সংখ্যাটি স্থানীয়ভাবে একদিনে সর্বোচ্চ। খবর রয়টার্স-এর।
সিডনি কর্তৃপক্ষ সংবাদমাধ্যমটিকে জানিয়েছে, তারা করোনা ভাইরাসের উচ্চ সংক্রমণশীল ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্টকে নির্মূল করতে চেষ্টা করছে। সেজন্য তারা তিন সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণার পরিকল্পনা করছে।
নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রধান গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান সিডনির সাংবাদিকদের আজ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমরা লকডাউন দীর্ঘায়িত করতে চাই না। আমরা চাই না লোকজন লকডাউনে ঘর থেকে বের হোক, সংক্রমিত হয়ে ঘরে ফিরুক, পরিবারের সদস্যদের সংক্রমিত করুক। বেশিরভাগ মানুষকে টিকার আওতায় আনার পর আমরা স্বস্তি বোধ করবো।’
গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান সিডনির বাসিন্দাদের অনুরোধ করে বলেছেন, ‘আপনারা আপাতত আত্মীয়-স্বজনের বাসায় যাতায়াত সীমিত করুন।’ তিনি বাসিন্দাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন এই লকডাউন হবে সিডনিতে শেষ লকডাউন।
সিডনিতে প্রথম করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয় তিন সপ্তাহ আগে। আক্রান্ত ব্যক্তি ছিলেন একজন লিমুজিন চালক। তিনি বিমানের যাত্রী পরিবহন করতেন। বৃহস্পতিবার সিডনিতে ২৬ জনকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে অস্ট্রেলিয়ার ১০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »