Ultimate magazine theme for WordPress.

কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমারের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

0

উপমহাদেশের কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমারের (৯৮) মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
আজ এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। বার্তা সংস্থা বাসস এ খবর জানিয়েছে।
শ্বাসকষ্ট নিয়ে মুম্বাইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি ছিলেন দিলীপ কুমার। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মৃত্যু হয় তাঁর। শেষ সময়ে স্ত্রী সায়রা বানু তাঁর পাশে ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে শোকাচ্ছন্ন ভারতের বিনোদন অঙ্গন। দিলীপের মৃত্যুতে শোক জ্ঞাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়সহ বিভিন্ন অঙ্গনের তারকারা।
বলিউডের ‘ট্র্যাজেডি কিং’ হিসেবে পরিচিত ছিলেন দিলীপ কুমার। ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পে তাঁর অবদান অনেক।
চল্লিশ দশকে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন দিলীপ কুমার (প্রকৃত নাম ইউসুফ খান)। ‘নয়া দুয়ার’, ‘মুঘল-ই-আজম’, ‘দেবদাস’, ‘রাম অউর শ্যাম’, ‘আন্দাজ’, ‘মধুমতি’ ও ‘গঙ্গা যমুনা’সহ বহু বিখ্যাত সিনেমায় নায়কের চরিত্রে কাজ করেন। কয়েক দশক টানা রাজত্ব করেন তিনি। ১৯৯৮ সালে ‘কিলা’ তাঁর শেষ সিনেমা। ৬৫টিরও বেশি সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন।
‘গোপী’, ‘সাজিনা’ ও ‘বৈরাগ’ সিনেমায় সহ-অভিনেত্রী সায়রা বানুকে ১৯৯৬ সালে বিয়ে করেন দিলীপ কুমার।
ষাট দশকের ক্যারিয়ারে কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ভারতের পদ্ম বিভূষণ, পদ্মভূষণ ও দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারে ভূষিত হন দিলীপ কুমার। দিলীপই ভারতের একমাত্র অভিনেতা, যিনি পাকিস্তানের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার নিশান-ই-ইমতিয়াজ লাভ করেন। এ ছাড়া তিনিই ভারতের প্রথম ফিল্মফেয়ার সেরা অভিনেতা পুরস্কার পান এবং তিনি শাহরুখ খানের সঙ্গে সর্বোচ্চ আট বার এই পুরস্কারে ভূষিত হন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »