Ultimate magazine theme for WordPress.

ঢাকায় ফ্লাইট বন্ধ করল এমিরেটস ও ইতিহাদ!!

0

করোনা সংক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকায় ফ্লাইট বন্ধ করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুই এয়ারলাইনস এমিরেটস ও ইতিহাদ এয়ারওয়েজ। ১৫ জুলাই পর্যন্ত ঢাকা থেকে কোনো যাত্রী নেবে না এমিরেটস এয়ারলাইনস। আর ইতিহাদ এয়ারওয়েজ বন্ধ রাখবে ২১ জুলাই পর্যন্ত।গতকাল এমিরেটস এয়ারলাইনস জানিয়েছে, ১৫ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাড়াও পাকিস্তান ও শ্রীলংকায় যাত্রীবাহী বিমান চলাচল আপাতত বন্ধ করে দিয়েছে এমিরেটস এয়ারলাইনস। এছাড়া গত ১৪ দিনে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা হয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন এমন যাত্রীদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না। তবে শুধু সংযুক্ত আরব আমিরাতের নাগরিক, আমিরাতের গোল্ডেন ভিসাধারী ব্যক্তি ও কূটনৈতিক মিশনের সদস্যরা যারা করোনার সাম্প্রতিক বিধি মেনে চলেছেন তাদের প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে। এর আগে ১৫ জুলাই পর্যন্ত ভারতে যাত্রীবাহী সব ফ্লাইট স্থগিতের ঘোষণা দেয় এমিরেটস।এদিকে ইতিহাদ এয়ারওয়েজ বাংলাদেশ থেকে সব ধরনের ফ্লাইট পরিচালনা-সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা আবারো বাড়িয়েছে সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২১ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে কোনো ফ্লাইট পরিচালনা করবে না সংস্থাটি। এছাড়া ২১ জুলাই পর্যন্ত ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকেও ইতিহাদের সব ফ্লাইট বন্ধ থাকবে। এক টুইট বার্তায় এ চারটি দেশকে নভেল করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকার কথা উল্লেখ করা হয়েছে সংস্থাটির পক্ষ থেকে।জানা গেছে, গত ২১ মে থেকে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকে প্রতিষ্ঠানটি ফ্লাইট পরিচালনা বন্ধ রেখেছে। ওই সময় নেপালের সঙ্গেও ফ্লাইট বন্ধ করেছিল ইতিহাদ। এর আগে গত এপ্রিল থেকে ভারতের সঙ্গে ফ্লাইট বন্ধ রেখেছে এয়ারলাইনসটি।

এর আগে গত শুক্রবার বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপালসহ কয়েকটি দেশ ভ্রমণে নাগরিকদের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ২১ জুলাই পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। এছাড়া এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হয়ে গেলে ভ্রমণ করতে ইচ্ছুক আমিরাতের নাগরিকদের করোনা-সংক্রান্ত যাবতীয় সতর্কতা ও প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ অনুসরণ করতে হবে।

নিজেদের নাগরিকদের ওপর বাংলাদেশে ভ্রমণের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির একাধিক গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ২১ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলংকায় যেতে পারবেন না আমিরাতবাসী। দেশটির প্রশাসন এর আগে এ দেশগুলো থেকে যাত্রীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। সেটিও ২১ জুলাই পর্যন্ত কার্যকর আছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »