Ultimate magazine theme for WordPress.

কোয়ার্টারে আর্জেন্টিনা-ইকুয়েডর লড়াই : পরিসংখ্যান কী বলছে?

0

কোপা আমেরিকায় প্রথম সেমিফাইনালের দুই দল ঠিক হয়ে গেছে। আগামী ৬ জুলাই ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ব্রাজিল আর পেরু।
এবার অপেক্ষা দ্বিতীয় সেমিফাইনালের দুই দলের। যেখানে মুখোমুখি হবে কোয়ার্টারে আর্জেন্টিনা-ইকুয়েডর আর উরুগুয়ে-কলম্বিয়ার মধ্যে জয়ী দুই দল।
কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে রোববার সকাল ৭টায় মাঠে নামছে শিরোপার অন্যতম দাবিদার আর্জেন্টিনা। ইকুয়েডরের বিপক্ষে তাদের ম্যাচটি হবে এস্তাদিও অলিম্পিকো পেদ্রো লুডোভিকো স্টেডিয়ামে।
দুই দলের এই শেষ আটের লড়াইয়ে পরিষ্কার ফেবারিট আর্জেন্টিনা। শক্তিমত্তায় ইকুয়েডরের থেকে সব দিকেই এগিয়ে আলবিসেলেস্তেরা। আসুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক দুই দলের হেড টু হেড পরিসংখ্যান।
* দুই দল মোট ৩৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে আর্জেন্টিনার জয় ২১টিতেই, ইকুয়েডর জিতেছে ৫টি। ১০টি ম্যাচ হয়েছে ড্র।
* কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনা আর ইকুয়েডর মুখোমুখি হয়েছে ১৫ বার। এর মধ্যে ১০ ম্যাচে জিতেছে আর্জেন্টিনা। ইকুয়েডর কখনই কোপায় আলবিসেলেস্তেদের বিপক্ষে জিততে পারেনি। ৫টি ম্যাচ করেছে ড্র।
* সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ইকুয়েডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় জয় ১২-০ গোলের। ১৯৪২ সালে কোপা আমেরিকাতেই এত বড় ব্যবধানে ইকুয়েডরকে হারিয়েছিল তারা।
* অন্যদিকে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ইকুয়েডরের সবচেয়ে বড় জয় ২-০ গোলের। পাঁচ জয়ের মধ্যে চারবারই এই ব্যবধানে তারা জিতেছে।
* আর্জেন্টিনা-ইকুয়েডরের মধ্যে সর্বশেষ দেখা হয়েছিল গত বছরের অক্টোবরে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে। সে ম্যাচে আর্জেন্টিনা ১-০ গোলে জয়ী হয়।
* কোপা আমেরিকায় সর্বশেষ দেখায় আরও তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছিল ইকুয়েডরের। ২০০৪ সালে সে ম্যাচে তাদের ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল আর্জেন্টিনা। সবমিলিয়ে ইকুয়েডরকে আর্জেন্টিনা ছয় বা তার বেশি গোল দিয়েছে পাঁচবার।
* সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মুখোমুখি সর্বশেষ পাঁচ লড়াইয়েও পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে আর্জেন্টিনা। পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই জিতেছে তারা, ইকুয়েডর জয় পেয়েছে একটিতে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »