Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের জয়ে রেকর্ড বইয়ে তিতে…..

0

ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক…কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে নামার আগে তিতের মাথায় কি রেকর্ডের কথাটা ছিল? না থাকারই কথা।
ম্যাচ জয়টাই এখানে মুখ্য, মুখ্য ছন্দ ধরে রাখা। রেকর্ডটা এখানে মুখ্য বিষয় না, তা শুধুই উপজাত মাত্র। উপজাত হলেও কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারানোর ম্যাচে তিতে যা রেকর্ড গড়লেন, তা ঈর্ষান্বিত করবে ব্রাজিলের সাবেক অনেক কোচকেই। এই জয়ের মাধ্যমে ব্রাজিলকে টানা ১০টি ম্যাচ জেতালেন এই ৬০ বছর বয়সী কোচ।
দুদিন আগেই ব্রাজিল দলের কোচ হিসেবে পাঁচ বছর পূর্তি উদ্‌যাপন করেছেন শিষ্যদের সঙ্গে। ছোটখাটো অনুষ্ঠান হয়েছে, খাওয়াদাওয়া, ছবি তোলাতুলিও হয়েছে। কিন্তু এই অসাধারণ মুহূর্তটা ভালোভাবে উদ্‌যাপন করার জন্য কলম্বিয়ার বিপক্ষে জয়টা বড্ড দরকার ছিল। হেরে গেলে আনন্দের উপলক্ষে হুট করে বেসুরো বিউগল বেজে উঠত যে।সেটা হতে দেননি নেইমাররা। কাসেমিরো আর ফিরমিনোর গোলে কলম্বিয়াকে হারিয়ে এবারের কোপায় নিজেদের জয়ের শতভাগ রেকর্ড ধরে রেখেছে ব্রাজিল। আর এই জয় সঙ্গে করে নিয়ে এসেছে অনন্য ওই রেকর্ডটিকে।
আগে টানা নয়টা ম্যাচ জিতেছিলেন তিতে, এমন রেকর্ড আছে। সেবার ১০ নম্বর ম্যাচে এই কলম্বিয়ার কাছেই ১-১ গোলে ড্র করে ধারায় ব্যত্যয় ঘটেছিল। এবারও প্রতিপক্ষ ছিল সেই কলম্বিয়া। ম্যাচের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত এবারও জয়হীন হওয়ার শঙ্কা ঘিরে ধরেছিল ব্রাজিলকে। সেটা হতে দেননি কাসেমিরো। শেষ মুহূর্তে দুর্দান্ত এক হেডে গোল করে কোচকে এনে দিয়েছেন রেকর্ডটা।
তিতেকে হাতছানি দিচ্ছে মারিও জাগালোর আরেকটি রেকর্ড। খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী এই কোচ ১৯৯৭ সালে দলকে টানা ১৪টি ম্যাচ জিতিয়েছিলেন, যা ব্রাজিলের রেকর্ড। সেই রেকর্ড ছুঁতে হলে ব্রাজিলকে আরও চারটা ম্যাচ জিততে হবে। আর চারটা ম্যাচ জিততে পারলে ব্রাজিল এবারের কোপা আমেরিকা জিতে যাবে।প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ বাকি আছে আর একটা। এর সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও ফাইনাল মিলিয়ে আরও চারটি ম্যাচ আছে ব্রাজিলের হাতে। বাকি চার ম্যাচ জিতলে কোপার শিরোপা জেতার পাশাপাশি উপজাত হিসেবে জাগালোর রেকর্ডটাও স্পর্শ করা হয়ে যাবে তিতের।তিতে অবশ্য কোপা জয়কেই মূল লক্ষ্য বানাবেন, এটা নিশ্চিত। সঙ্গে যদি জাগালোর রেকর্ডটাও হয়ে যায়, হোক না!

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »