Ultimate magazine theme for WordPress.

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধর্ষণের চার মাসেও অভিযুক্ত ধর্ষক আটক হয়নি।

0

#মোঃ বারিউল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জঃচাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে ৯ বছরের শিশু ধর্ষণের ৪ মাসেও ধর্ষককে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

ভুক্তভোগী শিশুর বাবা জানান, তার ৯ বছরের শিশুটি তারা বাড়িতে না থাকার সুযোগে মেহেদী নামক এক যুবক ধর্ষণ করে প্রায় ৪ মাস আগে। কিন্তু এখন পর্যন্ত পুলিশ ধর্ষক মেহেদীকে (২০) আটক করতে পারে নি। মেয়েটির বাবার অভিযোগ ঐ ধর্ষককে শনাক্ত তারাই করে পুলিশের কাজ এগিয়ে দেয়ার পরও গ্রেফতার হচ্ছেনা নরপশু। তার বাড়ি রাধানগর ইউনিয়নের রোকনপুরগঞ্জে। যার পুরো ঠিকানা পুলিশের হাতে দেয়া হয়েছে। মেহেদি কি আত্নগোপনে এমন প্রশ্নের উত্তরে মেয়েটির বাবার দাবী পুলিশ যদি মামলার আসামীকে ধরতে না পারে তবে বলুক আমরাই ধরে দিচ্ছি। পুলিশের নীরবতা কে দু:খজনক দাবী বরে শিশুটির বাবা দ্রুত ধর্ষকের গ্রেফতারের মাধ্যমে ফাঁসি দাবী করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ধর্ষক মেহেদী’র চাচা আব্দুল বাসির বলেন, তার ভাতিজা মেহেদী ও তার ভাই সাদিকুল ইসলামসহ তার পরিবারের সকলে দুই মাস থেকে আত্মগোপনে রয়েছে। তবে বিষয়টি তার জানা এবং তাদেরকে কিছুদিন বাইরে থাকতে বলেছে। তারা চেষ্টা করছে মেয়ে পক্ষ ও ছেলে পক্ষের সাথে একটা সমঝোতা করার।

এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার(ওসি) তদন্ত ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সেলিম রেজা বলেন, আমরা অভিযুক্ত ধর্ষককে শনাক্ত করতে পেরেছি।সে আত্নগোপনে রয়েছে,খুব শীঘ্রই তাকে ধরে ফেলবো বলে আশা করছি।

প্রসঙ্গত: গত (১২ ফেব্রুয়ারী ) বুধবার শিশুটিকে তার নিজ বাড়িতে একা পেয়ে পানি খেতে চাওয়ার নাম করে একই এলাকার মেহেদী ধর্ষণ করে। ঘটনার ১ দিন পর শিশুর বাবা বাদী হয়ে গোমস্তাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।”

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »