Ultimate magazine theme for WordPress.

ভারতে ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৮৪৭ জনের মৃত্যু

0

ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক…করোনায় বিপর্যস্ত ভারতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও তিন হাজার ৮৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে।
বৃহস্পতিবার সকালে কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে গত ২৪ ঘণ্টা অর্থ্যাৎ এক দিনের এই হিসেব দিয়েছে একাধিক সংবাদ মাধ্যম।
ভারতে বুধবার ৩ হাজার ৮৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগেরদিন মৃতের সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ১৫৭ জন। সবমিলিয়েমোট মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩ লাখ ১৫ হাজার ২৩৫ জনে।করোনায় ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১১ হাজার ২৯৮ জন। এর মধ্যদিয়ে মোট আক্রান্ত পৌঁছাল ২ কোটি ৭৩ লাখ ৬৯ হাজার ৯৩ জনে। মৃতের হিসেবে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র । এরপর রয়েছে কর্ণাটক। দেশজুড়ে ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ১৩৫ জন।
এদিকে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ৮১ লাখ ছাড়িয়েছে। আর মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৪ লাখ ৯৪ হাজার।
জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৮১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৭৮ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৪ লাখ ৯৪ হাজার ৫৯৫ জনের।
বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৩১ লাখ ৯০ হাজার ১৬১ জন। আর এই মহামারিতে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯১ হাজার ৯৪৭ জনের।
যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ব্রাজিল। আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৬২ লাখ ৭৪ হাজার ৬৯৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৫৪ হাজার ৪২৯ জনের। আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে তৃতীয় স্থানে।
মৃত্যু বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী মেক্সিকো চতুর্থ স্থানে আছে। আক্রান্ত বিবেচনায় দেশটির অবস্থান ১৫ নম্বরে। মেক্সিকোতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ লাখ ২ হাজার ৭২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ২২ হাজার ২৩২ জনের।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৯২টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
সূত্র : সমকাল

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »