Ultimate magazine theme for WordPress.

আবারও ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আটকাল যুক্তরাষ্ট্র

0

ক্রাইম টিভি বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক —ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলি হামলার নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে আনা প্রস্তাব আবারও আটকে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো নিন্দা প্রস্তাব আটকাল যুক্তরাষ্ট্র।
ফিলিস্তিনে ইসরাইলের অব্যাহত হামলা নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে দুটি রুদ্ধদার বৈঠকের পর রোববার এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। নিরাপত্তা পরিষদের এ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছে চীন।
আল জাজিরার খবরে বলা হয়, নিরাপত্তা পরিষদ থেকে অস্ত্রবিরতির আহ্বানের জন্য নরওয়ে, চীন ও তিউনিসয়ার নেতৃত্বে চেষ্টা চলছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতায় এখনো তা ফলপ্রসূ হয়নি।
ফিলিস্তিনের রাজনৈতিক দল ফাতাহর একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা সোমবার আল-জাজিরাকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই অবস্থানে তারা হতাশ। ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ফোনে যে ইতিবাচক বার্তা পাওয়া গিয়েছিল, তার প্রতিফলন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ঘটছে না বলে জানান তিনি।
ইসরাইল ও ফিলিস্তিন ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রকাশ্য বিবৃতি চাইছে বেশ কয়েকটি দেশ। কিন্তু এতে বারবার বাধা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ফলে বিবৃতি ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের ওপর চাপ বাড়ছে।
এ প্রসঙ্গে চীনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এ সংকট সমাধানে একটি বিবৃতি দিতে অন্য দেশগুলোকে রাজি করাতে আবারও চেষ্টা চালাবে চীন।
বৈঠকে জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড বলেন, এ সংঘাত থামাতে যুক্তরাষ্ট্র তার কূটনৈতিক চ্যানেলগুলো ব্যবহার করে নিরলস কাজ করছে। আমরা বিশ্বাস করি, ফিলিস্তিনি ও ইসরাইলিদের পূর্ণ অধিকার রয়েছে নিরাপদে বসবাসের।
বৈঠকে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালকি বলেন, প্রতিবারই ইসরাইল একজন বিদেশি নেতাকে ডেকে তাদের পক্ষে কথা বলায়। এর মধ্যে দিয়ে ফিলিস্তিনি হত্যার বিষয়ে আরও উৎসাহ পায় ইসরাইল।
নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য হলো—যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ফ্রান্স, রাশিয়া ও যুক্তরাজ্য। এই দেশগুলোর প্রতিটির যেকোনো বিষয়ে ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করে তা আটকে দেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »