Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিষয়ক নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ রাশিয়ার টিকা প্রত্যাখ্যান করেছে…..

টিকাটির নিরাপত্তা, মান ও কার্যকারিতা সংক্রান্ত তথ্যের ঘাটতিকে উদ্ধৃত করে সংশ্লিষ্ট কর্মীরা স্পুতনিক ভি’র ‘সহজাত ঝুঁকি’ ও ‘গুরুতর ত্রুটির’ ওপর আলোকপাত করেন।

0

ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক…রাশিয়ার টিকা স্পুতনিক-ভি আমদানির অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিষয়ক নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ আনভিসা। রয়টার্স জানিয়েছে, করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত দেশটিতে মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নররা টিকাটি আমদানির অনুরোধ করেছিল। কিন্তু আনভিসার পাঁচ সদস্যের পরিচালনা পর্ষদ সর্বসম্মতিক্রমে টিকাটি অনুমোদন না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। টিকাটির নিরাপত্তা, মান ও কার্যকারিতা সংক্রান্ত তথ্যের ঘাটতিকে উদ্ধৃত করে সংশ্লিষ্ট কর্মীরা স্পুতনিক ভি’র ‘সহজাত ঝুঁকি’ ও ‘গুরুতর ত্রুটির’ ওপর আলোকপাত করেন।আনভিসার মেডিসিনস অ্যান্ড বায়োলজিকাল প্রোডাক্টসের ব্যবস্থাপক গুস্তাভো ম্যান্ডেজ বলেন, ভ্যাকসিনে এডেনোভাইরাসের উপস্থিতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ, যা শরীরে পুনরুৎপাদিত হতে পারে। এটি একটি ‘গুরুতর ত্রুটি’। স্বাস্থ্য নজরদারি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক আনা ক্যারোলিনা মোরেইরা মারিনো আরুজো বলেন, উপস্থাপিত সব নথিপত্র, সশরীরে করা পরিদর্শনে প্রাপ্ত উপাত্ত এবং অন্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষগুলোর কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে টিকাটির ‘সহজাত ঝুঁকি’ অনেক বেশি বলে মনে হয়েছে।বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ এরই মধ্যে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় তাদের নাগরিকদের দেহে স্পুতনিক ভি প্রয়োগে অনুমোদন দিয়েছে। তবে আনভিসার মতো ইউরোপিয়ান ইউনিয়নও এখনো রাশিয়ার টিকাটিকে অনুমোদন দেয়নি। তারা টিকাটির বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং উৎপাদন প্রক্রিয়া সংক্রান্ত আরও তথ্য চেয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »