Ultimate magazine theme for WordPress.

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ গুলিকে ল্যাটিন আমেরিকা বলা হয় কেন ?

0

ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক …লাতিন বা ল্যাটিন আমেরিকা বলতে উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের এমন অঞ্চলগুলোকে বোঝায় যেখানকার জনগণ লাতিন ভাষা থেকে উদ্ভূত রোমান্স বা রোমানিক ভাষাসমূহে কথা বলে। এ ধরণের ভাষা বলতে মূলত স্পেনীয় এবং পর্তুগিজ ভাষাকে বুঝায়। এই অঞ্চলটির একপাশে রয়েছে অ্যাংলো-আমেরিকা অঞ্চল যেখানকার মানুষ প্রধানত ইংরেজি ভাষায় কথা বলে।
এ পর্যায়ে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে স্পেনীয় ভাষার ছড়িয়ে পড়া প্রসঙ্গে একটু বলে নেওয়া যাক।

১৬শ শতকে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে স্পেনীয় উপনিবেশ স্থাপনের মধ্য দিয়ে স্পেনীয় ভাষা দুই আমেরিকা মহাদেশ, ফিলিপিন্স ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।
বর্তমানে এটি প্রায় ৩৯ কোটি লোকের মাতৃভাষা এবং সব মিলিয়ে বিশ্বের প্রায় ৪১ কোটি লোক এই ভাষায় কথা বলেন। এদের অধিকাংশই স্পেন ও দক্ষিণ আমেরিকায় বাস করেন। স্পেনীয় ভাষাভাষীর সংখ্যা অনুযায়ী মেক্সিকো বৃহত্তম দেশ। তারপরেই আছে কলম্বিয়া, স্পেন, আর্জেন্টিনা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।
উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের ২১ টি দেশ ল্যাটিন অঞ্চলের আওতায় পড়ে। এর মধ্যে দক্ষিণ আমেরিকার ১০টি, মধ্য আমেরিকার ৬টি, ক্যারিবীয় অঞ্চলের ৩টি ও উত্তর আমেরিকা মহাদেশের ১টি দেশ রয়েছে।
এক নজরে দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশে পড়া ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলো হচ্ছে: আর্জেন্টিনা (স্পেনিস), বলিভিয়া (স্পেনিস), ব্রাজিল (পর্তুগিজ), চিলি (স্পেনিস), কলম্বিয়া (স্পেনিস), ইকুয়েডর (স্পেনিস), প্যারাগুয়ে (স্পেনিস), পেরু (স্পেনিস), উরুগুয়ে (স্পেনিস) এবং ভেনেজুয়েলা (স্পেনিস)। মধ্য আমেরিকা: পানামা (স্পেনিস), এল সালভাদর (স্পেনিস), গুয়েতেমালা (স্পেনিস), হন্ডুরাস (স্পেনিস), নিকারাগুয়া (স্পেনিস) এবং কোস্টারিকা (স্পেনিস)।
ক্যারিবীয় অঞ্চল : কিউবা (কিউবান-স্পেনিস), হাইতি (ফ্রেঞ্চ অর্থাৎ ফরাসী) এবং ডমিনিকান প্রজাতন্ত্র (ফ্রেঞ্চ)। উত্তর আমেরিকা মহাদেশ: মেক্সিকো (স্পেনিস)। এছাড়াও এসব অঞ্চলের কিছু স্বায়ত্ত্বশাসিত অঞ্চল ল্যাটিন আমেরিকার আওতাভূক্ত।
উত্তর আমেরিকা আর দক্ষিণ আমেরিকা দুটি স্বতন্ত্র মহাদেশ হলেও আমেরিকা মহাদেশের আবিষ্কারক ক্রিস্টোফার কলম্বাস। কিন্তু কলম্বাসের নামে মহাদেশ দুটোর একটারও নাম হলো না কেন? এ নিয়ে কিছু জটিলতা আছে। সেটা না হয় আরেক দিন বলা যাবে। ধন্যবাদ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »