Ultimate magazine theme for WordPress.

বলিভিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্টকে ৪ মাস কারাগারে থাকতে হবে

0

ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক….. বলিভিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট জিনিন আনেজ চাভেজকে অভ্যুত্থানের বিচারের আগে চার মাস কারাবন্দী থাকতে হবে। পূর্বসূরি ইভো মোরালেসকে ক্ষমতাচ্যুত করার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গত শনিবার গ্রেপ্তার করা হয় আনেজকে। খবর এএফপির।
শুনানির পর টুইটারে আনেজ জানান, ‘অভ্যুত্থানের বিচারের আগে তারা আমাকে চার মাস বন্দী রাখবে। অথচ কোনো অভ্যুত্থানই ঘটেনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বিরোধী দলগুলোকে বিক্ষোভের আহ্বান জানান বলিভিয়ার এই সাবেক প্রেসিডেন্ট। ‘রাজনৈতিক প্রতিশোধ’ নিতে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আনেজের বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থানের ষড়যন্ত্র, রাষ্ট্রদ্রোহ ও সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ আনা হয়। গ্রেপ্তারের পর গতকাল রোববার তাঁকে ভার্চ্যুয়াল শুনানিতে হাজির করা হয়।
৫৩ বছর বয়সী আনেজ এবং তাঁর এক বছরের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দুই মন্ত্রীকে ‘সতর্কতামূলক পদক্ষেপ’ হিসেবে আটকাদেশ দিতে আবেদন করেন প্রসিকিউটর। আনেজকে লা পাজের নারী কারাগারে পাঠানো হচ্ছে।
নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগে বিক্ষোভের মুখে ২০১৯ সালের নভেম্বরে সাবেক প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস ও তাঁর মিত্ররা দেশ ছেড়ে পালান। মোরালেস দাবি করেছিলেন, অভ্যুত্থান করে তাঁকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়। এরপর বলিভিয়ার ক্ষমতায় আসেন ডানপন্থী আনেজ। ২০২০ সালের অক্টোবরে নতুন একটি নির্বাচনের পর মোরালেস নির্বাসন থেকে দেশে ফেরেন। নির্বাচনে জিতে মোরালেস–সমর্থিত বামপন্থী দল মুভমেন্ট ফর সোশ্যালিজম (এমএএস)।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »