Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিল গামী যাত্রীরা ঢাকা এয়ারপোর্টে ইমিগ্রেশনে হয়রানির শিকার।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক♦

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে বর্তমানে প্রচুর বাংলাদেশি বসবাস করছেন তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে।ব্রাজিলে অবস্থানরত বাংলাদেশীরা প্রায় সকলেই বিভিন্ন ব্যবসার সাথে জড়িত। সাম্প্রতিক সময়ে যারা ব্রাজিলের পার্মানেন্ট রেসিডেন্সি কার্ড পেয়েছেন তারা নিজ নিজ পরিবারকে নিজেদের সাথে রাখতে – আমন্ত্রণ পত্রের মাধ্যমে ঢাকায় অবস্থিত ব্রাজিল হাইকমিশন থেকে পার্মানেন্ট ভিসা সংগ্রহ করে। যেহেতু ঢাকা থেকে এই ভিসা ইস্যু হয় সেই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন খুব সহজেই  ভিসাটি চেক করতে পারেন । কিন্তু যখনই একজন যাত্রী ঢাকা এয়ারপোর্ট ইমিগ্রেশনে  আসেন ঠিক তখনই ইমিগ্রেশন অফিসাররা যাত্রীদের সাথে বিভিন্ন ধরনের খারাপ আচরন করতে থাকেন । এবং তাদেরকে বুঝাতে চেষ্টা করেন এই ভিসায় সে যেতে পারবে না । এই কথাগুলো বলার কারণ হলো যাত্রীদের সাথে এক প্রকার প্রতারণা করা । এই প্রতারণার মাধ্যমে সে কিছু টাকা যাত্রীর কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় । তবে হ্যাঁ যদি যাত্রী চালাক হয় তাহলে এক পয়সাও দিতে হয় না কারণ হলো তার ভিসা অরিজিনাল ।

যাই হোক এই ধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনা বন্ধের দাবিতে ব্রাজিলে বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতারা দাবি করেছেন খুব দ্রুত যাতে এই ধরনের হয়রানি বন্ধ হয়। বাংলাদেশের সব থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত সেক্টর হচ্ছে সরকারের এই ইমিগ্রেশন সেক্তর। বাংলাদেশ থেকে মানব পাচারের মূল হোতা হচ্ছে এই ধরনের ইমিগ্রেশন অফিসাররা। সরকার যদি এই ইমিগ্রেশনের দিকে নজর দেয় তাহলে একটি আদম পাচার হবেনা বাংলাদেশ থেকে। এমনটাই দাবি করেছেন ব্রাজিলে বাংলাদেশী কমিউনিটি। ব্রাজিলে বাংলাদেশী কমিউনিটির নেতাদের দাবি আর যেন ঢাকা এয়ারপোর্টে তাদের পরিবার পরিজনদের কোন প্রকার ভিসাসংক্রান্ত ব্যাপারে হয়রানি না করা হয় ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »