Ultimate magazine theme for WordPress.

পিরামিডের দেশ মিশর এর ভিসা করবেন যেভাবে ।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা বিনোদন ডেস্ক ♦

পিরামিডের দেশ মিশর ইসলামী শাসন আমলের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের জন্য যেকোনো পর্যটকের কাছে খুবই আকর্ষণীয়। ভ্রমণের জন্য এখানে অসংখ্য পর্যটন এলাকা। মিশরীয় পিরামিড সহ এখানে রয়েছে নানা দর্শনীয় স্থান। ভ্রমণের জন্য মিশরে যেতে হলে যেতে হবে ঢাকায় অবস্থিত মিশরীয় দূতাবাসে। ঢাকায় অবস্থিত মিশর দূতাবাস গুলশান-২ এভিনিউ এভিনিউ এলাকার ৯০ নম্বর রোডের শেষ মাথায় রাস্তার উত্তর পাশে অবস্থিত।

ঠিকানা:

বাড়ি # ৯, সড়ক # ৯০, গুলশান # ২, ঢাকা-১২১২।

ফোন: +৮৮-০২-৮৮৫৮৭৩৭, +৮৮-০২-৮৮৫৮৭৩৮, +৮৮-০২-৮৮৫-৮৭৩৯

ফ্যাক্স: +৮৮-০২-৮৮৫৮৭৪৭

ই-মেইল: egypt.emb.dhaka@mfa.gov.eg

মিশরে যেতে হলে যেসব দেশের নাগরিকের আগমনের পূর্বেই ভিসা প্রয়োজন হয়:

আফগানিস্তান, আলজেরিয়া, আর্মেনিয়া, আজারবাইজান, বাংলাদেশ, বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, চেচনিয়া, ক্রোয়েশিয়া, জর্জিয়া, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরাক, ইরান, ইসরাইল, কাজাখস্তান, কির্গিজ, লেবানন, ম্যাকাও, ম্যাসিডোনিয়া, মালয়েশিয়া, মলদোভা, মন্টিনেগ্রো, মরক্কো, পাকিস্তান, প্যালেস্টাইন, ফিলিপিন্স, সার্বিয়া, স্লোভেনিয়া, শ্রীলঙ্কা, তাজিকিস্তান, থাইল্যান্ড, তিউনিসিয়া, তুর্কমেনিস্তান, ইউক্রেন, উজবেকিস্তান এবং সব আফ্রিকান দেশগুলোর।

বাংলাদেশের নাগরিকদের মিশরের ভিসা প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

কমপক্ষে ৬ মাস মেয়াদ আছে এমন পাসপোর্ট।
সাদা পটভূমিতে তোলা ২ কপি পাসপোর্ট আকারের রঙিন ছবি।
যথাযথভাবে পূরনকৃত ভিসা ফরম।
ভ্রমণপথ বা বিমানের টিকিটের কপি।
বসবাসের জন্য রেসিডেন্স কার্ডের ফটোকপি।
ভিসা প্রক্রিয়াকরণের সময় ও নিয়ম:

ভিসার জন্য ব্যক্তিগতভাবে সরাসরি বা ই-মেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করা যাবে। ভিসা প্রক্রিয়াকরণে ৭-১০ কর্ম দিবস সময় লাগতে পারে।
ভিসা আপনার পাসপোর্টের সাথে লাগিয়ে দেওয়া হবে এবং পাসপোর্ট আপনাকে ফেরত দেওয়া হবে।
ভিসার মেয়াদ হবে এর অনুমোদনের তারিখ হতে ৬ মাস পর্যন্ত।
মিশরীয় কনস্যুলেটে ভিসা ছাড়াও ক্লিয়ারেন্সের জন্য আবেদন করতে হবে। এর জন্য ৬ সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে এবং এটি অবশ্যই ভিসা প্রসেসিং এর পূর্বেই করতে হবে।
ক্লিয়ারেন্সের জন্য ২ কপি ভিসা ফরম, ২ কপি ট্রাভেল ডকুমেন্ট, পাসপোর্টের ২ কপি ফটোকপি, ও ২ কপি পাসপোর্ট আকারের ছবি লাগবে।
যেসব দেশের নাগরিকের ক্লিয়ারেন্সের জন্য আবেদন করতে হয়:

মায়ানমার, তিউনিসিয়া, বাংলাদেশ, ইরান, পাকিস্তান, সোমালিয়া, ইন্দোনেশিয়া, মরক্কো, থাইল্যান্ড, আলজেরিয়া, শ্রীলঙ্কা, লেবানন, ফিলিপাইন, ইরাক, মোল্দাভিয়া, প্যালেস্টাইন, কসোভো, ইথিওপিয়া, কাজাখস্তান, ইরিত্রিয়া, আফগানিস্তান, সুদান, ইসরাইল, জিবুতি, চাদ, মৌরিতানিয়া, নাইজার, কমোরোস, মালি, বুরুন্ডি, সিয়েরা লিওন, রুয়ান্ডা, ঘানা, লাইবেরিয়া ও নাইজেরিয়া।

ভিসা আবেদন জমাদান ও গ্রহণের সময়:

জমাদান: সোমবার থেকে বুধবার- সকাল ১০ টা থেকে ১১ পর্যন্ত
গ্রহণ: সোমবার থেকে বুধবার-বিকাল ৩টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত
৫ কার্যদিবসের মধ্যে ভিসা প্রসেসিং সম্পন্ন হয়(কাগজপত্র ঠিকঠাক থাকলে)
ভিসা ফি

ধরন ও প্রকৃতি টাকা
ভিসা সিঙ্গেল এন্ট্রি ১,৯০০/-
মাল্টিপল এন্ট্রি ২,৮০০/-
একজেম্পটেড   ৮০০/-
লিগালাইজেশন বাণিজ্যিক ৪,১০০/-
স্বাক্ষর ১,৭০০/-
অনুবাদ ১,৯০০/-

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »