Ultimate magazine theme for WordPress.

সন্তান জন্ম দেয়ার আগেই সৎছেলেকে বিয়ে সেই রাশিয়ান ব্লগারের

0

রাশিয়ার ক্রাসনোদার ক্রাই-এ বসবাস করেন মারিনা বালমাশেভা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ জনপ্রিয় তিনি। বছর পঁয়ত্রিশের জনপ্রিয় ব্লগারের সাথে কয়েক মাস আগে তার আগের স্বামী অ্যালেক্সির সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়। আর সেই বিচ্ছেদের কারণ ছিল ওই স্বামীর ২১ বছরের ছেলে ভ্লাদিমির ভোভা শ্যাভিরিন।

এখন মারিয়ানা এবং ভ্লাদিমিরের সংসারে এক কন্যাসন্তান এসেছে। তবে তার ভূমিষ্ঠ হওয়ার আগেই ভ্লাদিমিরকে বিয়ে করে নিলেন মারিয়ানা। রাশিয়ার ক্রাসনোদার শহরে এক হাসপাতালে কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন মারিয়ানা।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের দাবি, মারিনা নিজের গর্ভে সন্তান চাইছিলেন। কিন্তু কোনও কারণে তা সম্ভব হয়নি। তা নিয়েই নাকি সম্পর্কে ফাটল ধরে। শেষ পর্যন্ত এক দশকের বেশি সেই দাম্পত্য ভেঙে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন মারিনা এবং অ্যালেক্সি।

অ্যালেক্সির সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও সৎছেলে ভ্লাদিমিরের সঙ্গে মারিনার নতুন এক সম্পর্ক তৈরি হয়। সেখান থেকে তারা বিয়ের সিদ্ধান্তও নেন।

এরপর মারিনার গর্ভে সন্তান আছে। তখন তারা পরে বিয়ের পরিকল্পনা করেন। কিন্তু এখবর ছড়িয়ে পড়ায় আনুষ্ঠানিক বিয়ে না হলেও তারা রেজিস্ট্রি করেন।

উল্লেখ্য, ভ্লাদিমিরের বাবা অ্যালেক্সি শ্যাভিরিনকে তিনি যখন বিয়ে করেন, তখন ভ্লাদিমিরের বয়স ৭ বছর। ভ্লাদিমির অ্যালেক্সির প্রথম পক্ষের সন্তান। অ্যালেক্সি এবং মারিয়ানা ৫ সন্তান দত্তকও নেন। ১০ বছর এক সঙ্গে থাকার পর বিচ্ছেদ হয়ে যায় মারিায়না এবং অ্যালেক্সির।

মারিয়ানা তাঁর সদ্যোজাত কন্যাসন্তানের একটি ছবি পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে তার মুখ দেখা যাচ্ছে না সেই ছবিতে। হয়তো পরে মেয়ের মুখ দেখাবেন তার কয়েক লাখ ফ্যান-ফলোয়ারকে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »