Ultimate magazine theme for WordPress.

৭০ বছর পর কোনো নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর আমেরিকায়

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

১৯৫৩ সালের পর প্রথম কোনো নারীকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হলো আমেরিকায়। লিসা মন্টগোমারি নামে ৫২ বছরের ওই নারী ২০০৭ সালেই দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, ববি জো স্টিননেট নামে আট মাসের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে তিনি খুন করেছেন।

লিসার আইনজীবীদের দাবি, তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ। তাই লিসার মৃত্যুদণ্ড রদ করা হোক। কিন্তু শেষপর্যন্ত স্থানীয় সময় বুধবার রাত দেড়টায় প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশন দিয়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করা হয় তাকে।

মৃত্যুদণ্ডের আগে লিসার মাস্ক খুলে এক নারী তাকে জিজ্ঞেস করেন, সে কিছু বলতে চায় কিনা। মৃত্যুর সামনে স্থির, থমথমে কণ্ঠস্বরে লিজা কোনো মতে বলতে পারে, ‘‘না।’’ শেষ সময়ে অত্যন্ত নার্ভাস হয়ে পড়েছিল সে।

কিন্তু তার মধ্যে কোনো আক্ষেপের চিহ্ন ছিল না বলেই উপস্থিত সাংবাদিকরা জানিয়েছেন। এরপরই তাকে ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়। পরে এক চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন।

লিসার বিরুদ্ধে অভিযোগ, এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে নৃশংসভাবে খুন করে সে। ওই নারীকে অপহরণ করে তার শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এরপর তার পেট কেটে গর্ভস্থ ভ্রূণকে বের করে এনে তাকে হত্যার চেষ্টা করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত প্রাণে বেঁচে যায় শিশুটি।

লিজার আইনজীবীদের দাবি ছিল, সে মানসিকভাবে অসুস্থ। ছোটবেলায় তার সৎ বাবা ও তার বন্ধুরা মিলে তাকে গণধর্ষণ করেছিল। সেই মানসিক ধাক্কায় বিপর্যস্ত হয়ে যায় লিসা। পরবর্তী সময়ে সেখান থেকেই তার মধ্যে অপরাধী মানসিকতা গড়ে ওঠে।

সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »