Ultimate magazine theme for WordPress.

কম খরচে ঘুরে আসতে পারেন এশিয়ার যে ৫টি দেশ

0

ঘুরতে কার না ভালো লাগে, আর তা যদি হয় দেশের বাইরে তবে তো কথাই নেই। তবে খরচের কথা বিবেচনা করে অণেকেরই ইচ্ছে থাকলেও বিদেশে ঘুরতে যাওয়া সম্ভব হয় না। তবে বর্তমান সময়ে কিছু সুন্দর ট্রাভেল ডেস্টিশন আছে যেখানে আপনি খুব কম খরচেই ঘুরে আসা যায়।

আজ এশিয়ার এমন ৫ টি দেশের কথা তুলে ধরবো যেখানে আপনি স্বল্প খরচে ঘুরে আসতে পারেন।

০১. থাইল্যান্ড
বিদেশ ভ্রমনের কথা আসলেই প্রথমেই যে দেশটির কথা মাথায় আসে তা হলো থাইল্যান্ড। অপূর্ব সুন্দর সমূদ্র সৈকত এবং ছোট ছোট দ্বীপের সমন্বয়ে গঠিত এশিয়ার সবথেকে জনপ্রিয় ট্রভেল ডেস্টিনেশন এই দেশটি। Tourism Authority of Thailand (TAT) এর তথ্যমতে ২০১৬ সালে ৩ কোটি ২০ লক্ষের ও বেশি মানুষ থাইল্যান্ড ভ্রমন করেছে। থাইল্যান্ড মূলত কম খরচে ভ্রমনের জন্য বিখ্যাত । ব্যাংকক এবং পাতায়ার মত জনপ্রিয় যায়গাগুলোতে তে ২০০০-২৫০০ টাকার মধ্যে বেশ ভালো মানের হোটেল পাওয়া যাবে।

চলুন একটি মজার তথ্য জেনে নেই, বাঘের লেজ দিয়ে কান চুলানোর ইচ্ছে হয়েছে কোনোদিন আপনার?

সে ইচ্ছেও পূরন করতে পারবেন থাইল্যান্ডের চাংমাই এ টাইগার কিংডম নামের এই চিড়িয়াখানায়। এখানে রয়েছে বাঘ মামার সাথে সরাসরি দেখা করা এবং পাশে বসে ছবি তোলার সুযোগ, সেই সুযোগে বাঘ মামার লেজ দিয়ে একটু কান চুলকে নিলে মনেহয় না মামা রাগ করবে।

এক নজরে থাইল্যান্ড
থাইল্যান্ডের মূদ্রা – বাথ
১ বাথ = ২.৭৪ টাকা
রাজধানী – ব্যাংকক
জনপ্রিয় ভ্রমনের স্থান – ব্যাংকক, পাতায়া, ফি ফি আইল্যান্ড

০২. মালয়েশিয়া
বিদেশ ভ্রমনের জন্য বাংলাদেশের টুরিস্টদের জনপ্রিয় ট্রাভেল ডেস্টিনেশন হিসেবে প্রথম ৩টি দেশের মধ্যে মালয়েশিয়া অবশ্যই শুরুর দিকে থাকবে। গত ২-৩ বছরে রেকর্ড সংখক টুরিস্ট বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া ভ্রমন করেছে। মালয়েশিয়ার জনপ্রিয় টুরিস্ট স্পটের মধ্যে উল্লেখযোগ্য – কুয়ালালামপুরের পেট্রোনাস টুইট টাওয়ার ( অনেকে বলেন, মালয়েশিয়া ভ্রমন করে কুয়ালালামপুরের পেট্রোনাস টুইট টাওয়ারের সামনে ছবি না তুললে ভ্রমনই বৃধা), টিওম্যান ,ল্যাংকাউয়ি, পেনং। মালয়েশিয়াতে মোটামুটি মানের হোটেলে থাকতে গেলে রাতপ্রতি আপনাকে খরচ করতে হবে ৩৫০০-৪০০০ টাকার মত।

এক নজরে মালয়েশিয়া
মালয়েশিয়ান মূদ্রা – রিংগিত
১ রিংগিত = ২০.৩৫ টাকা
রাজধানী – কুয়ালালামপুর
জনপ্রিয় ভ্রমনের স্থান – পেট্রোনাস টুইট টাওয়ার (কুয়ালালামপুর) টিওম্যান ,ল্যাংকাউয়ি, পেনং।

০৩. ইন্দোনেশিয়া
আপনার কি মিলিয়নির হওয়ার শখ? জীবনে যদি ১বারের জন্যও মিলিয়নির হতে চান তবে ঘুরে আসুন ইন্দোনেশিয়া থেকে। কারন বাংলাদেশের ৬০০টাকা = ইন্দোনেশিয়ান ১লক্ষ রুপিয়া। এটা খুব কমন ঘটনা যে, আপনি আপনার সংগীকে নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার কোনো রেস্টুরেন্টে ডিনার করতে গিয়েছেন। খাওয়া শেষ করে দেখলেন আপনার কয়েক লক্ষ টাকা বিল করে ফেলেছেন। (ভাবতেই তো কেমন লাগছে!!!)

কম খরচে ভ্রমনের আরেকটি জনপ্রিয় ট্রাভেল ডেস্টিনেশন এই ইন্দোনেশিয়া। কিন্তামানি ভিলেজ, উলুন দানু টেম্পল, তানাহ লট, মাঙ্কি ফরেস্ট, বালি এসব ইন্দোনেশিয়ার জনপ্রিয় স্থান। আর ইন্দোনেশিয়া ভ্রমনের জন্য ভিসা নিয়ে চিন্তা নেই, কারন আপনার কাছে রিটার্ন টিকেট থাকলে এয়ারপোর্ট থেকে ই পাবেন অনএরাইভাল ভিসা। ইন্দোনেশিয়াতে রাতপ্রতি হোটেলে খরচ হবে ২৫০০-৩০০০ টাকা।

এক নজরে ইন্দোনেশিয়া
ইন্দোনেশিয়ান মূদ্রা – রুপিয়া
১ রুপিয়া = .০০৬ টাকা
রাজধানী – জাকার্তা।
জনপ্রিয় ভ্রমনের স্থান – বালি, কিন্তামানি ভিলেজ, উলুন দানু টেম্পল, তানাহ লট, মাঙ্কি ফরেস্ট

০৪. ফিলিপাইন
নয়নাভিরাম সমূদ্র এবং সাদা বালুর সমুদ্র সীকত ফিলিপাইন কে পরিনত করেছে এশিয়ার অন্যতম ট্রাভেল ডেস্টিনেশন হিসেবে। এ দেশের টাকার মান বাংলাদেশি টাকার তুলনায় কম ( ১ পেসো = ১.৬৪ টাকা)। ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলা তে রাত প্রতি হোটেলের জন্য খরচ হবে বাংলাদেশি টাকায় ২০০০-২৫০০ টাকার মধ্যে। ডর্ম কিংবা হোস্টেলে থাকতে পারবেন আরো কমে। এখানে খাবার খরচ ও খুব একটা বেশি না। প্লেট ভর্তি স্ট্রিট ফুড পাবেন ৩-৫ ডলারে। ঘোরাঘুরির জন্য ফিলিপাইনের ম্যানিলা আর বোরোক্যা এই দুটি জায়গায় খুব বেশি জনপ্রিয়। ফিলিপাইনেই সম্ভবত সবথেকে কম খরচে ডাইভিং শেখা যায়। বাংলাদেশি টাকায় ১৫০০-২০০০ টাকার মধ্যেই শিখে নিতে পারবেন রোমাঞ্চকর ডাইভিং।

এক নজরে ফিলিপাইন
ফিলিপাইনের মূদ্রা – পেসো
১ পেসো = ১.৬৪ টাকা
রাজধানী – ম্যানিলা
জনপ্রিয় ভ্রমনের স্থান – ম্যানিলা, বোরোক্যা

০৫. ভিয়েতনাম
কমখরচে ভ্রমনের জন্য বিখ্যাত এশিয়ার অন্যতম আরেকটি দেশ হলো ভিয়েতনাম। ইদানিং বাংলাদেশ থেকেও প্রচুর টুরিস্ট ভিয়েতনাম ভ্রমন করছে। ভিয়েতনামের জনপ্রিয়া ট্রাভেল ডেস্টিনেশন এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো – ডা ন্যাং, মার্বেল মাউন্টেইন ও হোই অ্যান। ভিয়েতনামে থাকা এবং খাওয়া ২টার ই খরচ বেশ কম তাই ব্যাকপ্যাকিং ট্রাভেলার রা বিশেষ করে সোলো ব্যাকপ্যাকিং ট্রাভেলারদের কাছে ভিয়েতনাম ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ভিয়েতনামে ভ্রমণে গেলে তালিকায় রাখতে পারেন “ফু কুয়োক” (phu quoc) এর নাম। এটি ভিয়েতনামের জনপ্রিয় একটি সমূদ্র সৈকত।

এক নজরে ভিয়েতনাম
ভিয়েতনামের মূদ্রা – ডং
১ ডং = .০০৩৬ টাকা
রাজধানী – হানই
জনপ্রিয় ভ্রমনের স্থান – ফু কুয়োক, ডা ন্যাং, মার্বেল মাউন্টেইন ও হোই অ্যান।

৫০-৬০ হাজার টাকার মধ্যেই উপরে উল্লেখিত দেশগুলে সংগী সহ ঘুরে আসতে পারবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »