Ultimate magazine theme for WordPress.

নিজের বোনকে গর্ভে ধারণ করলেন ব্রিটিশ তরুণী!

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

নিজের বোনকে গর্ভে ধারণ করলেন ব্রিটিশ নারী হলি। শুনতে অবাক লাগলেও, সারোগ্যাসির মাধ্যমে নিজের মা ও সৎবাবার সন্তান জন্ম দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) দ্য গার্ডিয়েনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, হলি জানায়, তারা তিন ভাই-বোন। বড় বোন হানা (২৭), এরপরই রয়েছেন হলি (২৫) এবং তারপর হ্যারি (২২)।  তাদের বাবা ঠিকমতো তাদের খোঁজ-খবর নিতেন না। প্রায় একাই তিন সন্তানকে লালন-পালন করেছেন ফায়ে।

৩৬ বছর বয়সে অ্যান্ড্রুর (৩৩) সঙ্গে দেখা হয় ফায়ের। তারপর তারা বিয়ে করেন। হানা, হলি ও হ্যারির সৎবাবা হলেন অ্যান্ড্রুর। হলির মা ফায়ের সন্তান ধারণক্ষমতা প্রায় লোপ পেলেও অ্যান্ড্রুর সঙ্গে নিজের একটি বাচ্চা জন্ম দেওয়ার প্রচণ্ড আগ্রহ ছিলো তার। তবে, অনেক চেষ্টার পরও সফল হননি তিনি। বেশ কয়েকবার গর্ভপাত ঘটায় হতাশায় ছেয়ে যায় গোটা পরিবার। তখন একটিই পথ খোলা ছিলো ফায়ের সামনে। অ্যান্ড্রুর শুক্রাণু এবং অন্য নারীর ডিম্বাণু অর্থাৎ সারোগ্যাসির মাধ্যমে সন্তান জন্ম দেওয়া।

শেষ পর্যন্ত মায়ের ইচ্ছে পূরণ করতে এগিয়ে এলেন হলি। তিনি ফায়ের ডিম্বাণু ও সৎবাবা অ্যান্ড্রুর শুক্রাণু থেকে নিষিক্ত ভ্রুণ অর্থাৎ সারোগ্যাসির মাধ্যমে নিজের বোনকে গর্ভে ধারণ করার সিদ্ধান্ত নিলেন।

বাবা-মা রাজি হওয়ার পর চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী কাজ শুরু করেন হলি। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে অন্তঃসত্ত্বা হন হলি। তার গর্ভে বড় হয় মায়ের ডিম্বাণু ও সৎবাবার শুক্রাণু থেকে সৃষ্ট তারই বোন। সেই ভ্রুণ থেকে একটি কন্যাশিশুর জন্ম হয়, যার নাম রাখা হয় উইলো।

হলি জানান, তার গর্ভে জন্ম নেওয়া শিশু উইলোকে মেয়ে নয়, বোন হিসেবেই দেখেন তিনি। উইলো বড় হলে তাকে তার জন্মের পেছনের গল্পটি শোনানো হবে। এটি অদ্ভুত শোনাতে পারে কিন্তু ভীষণ ভালোবাসার মাধ্যমে তাকে পৃথিবীতে আনা হয়েছে। এটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »