Ultimate magazine theme for WordPress.

৭৩৭ ম্যাক্স পাইলটদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দেয়নি বোয়িং

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক ♦

বোয়িং কর্মকর্তারা ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজ পুনঃঅনুমোদনের সময় পাইলটদের উপযুক্তভাবে প্রশিক্ষিত করেনি বলে অভিযোগ করেছেন মার্কিন সিনেট তদন্তকারীরা। তাদের অভিযোগ, বোয়িং ও ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) কর্মকর্তারা নিরাপত্তাসংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য লুকানোর চেষ্টা করেছেন। খবর রয়টার্স।

গত মাসে এফএএ বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজ পুনরায় উড্ডয়নের অনুমোদন দেয়ার পর বিষয়টি সামনে এল।

বোয়িং জানিয়েছে, অনুসন্ধানগুলো পর্যালোচনা করছে এবং এগুলো গুরুত্ব সহকারে নেয়া হচ্ছে। এফএএ বলছে, সিনেটের কমার্স কমিটির প্রতিবেদনে বেশ কয়েকটি ভিত্তিহীন অভিযোগ রয়েছে। ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজের বিষয়টি পুরোপুরি পর্যালোচনা করা হয়েছে। উড়োজাহাজটির নিরাপত্তাসংক্রান্ত বিষয়গুলো সমাধান করা হয়েছে বলে এফএএ আত্মবিশ্বাসী।

পাঁচ মাসের ব্যবধানে ইন্দোনেশিয়া ও ইথিওপিয়ার ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় ৩৪৬ জন নিহত হয়েছিল। এ ঘটনায় এমসিএএস নামের অটোমেটেড ফ্লাইট সফটওয়্যারগুলোর ত্রুটি দায়ী করা হয়েছে। এ ত্রুটির ফলে উড্ডয়নের পর পরই উড়োজাহাজের সামনের অংশ নিচের দিকে ঝুঁকে পড়ে।

এ মডেলের উড়োজাহাজ আবারো আকাশে নিরাপদে ডানা মেলতে পারে, তা নিশ্চিত করার জন্য এফএএর প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে একটি সিমুলেটর পরীক্ষা করা হয়েছিল। পরীক্ষাগুলোয় কীভাবে ত্রুটিযুক্ত সফটওয়্যারের বিরুদ্ধে পাইলট পদক্ষেপ নিতে পারেন, তা ডিজাইন করা হয়েছিল।

শুক্রবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বোয়িং কর্মকর্তারা এমসিএএস সিমুলেটর পরীক্ষার প্রটোকলের বিপরীতে পাইলটদের উপযুক্তভাবে প্রশিক্ষিত করেননি। উল্টো এফএএ ও বোয়িং কর্মকর্তারা ৭৩৭ ম্যাক্স ট্র্যাজেডিতে অবদান রাখতে পারে এমন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »