Ultimate magazine theme for WordPress.

গ্রিক দ্বীপে শরণার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যকে ‘খারাপ’ করছে ইইউ নীতি

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

গ্রিসের তিনটি দ্বীপে শরণার্থীশিবিরে আটকে পড়া আশ্রয়প্রার্থীদের ওপর মানসিকভাবে খুব খারাপ প্রভাব পড়ছে বলে সতর্ক করে দিয়েছে মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠিত একটি দল।

তারা গবেষণায় দেখেছে, সব বয়সের মানুষের ওপর মানসিক অবসাদ, দুর্ঘটনা-পরবর্তী মানসিক সমস্যা এবং নিজের ক্ষতি করার মতো লক্ষণ প্রকাশ পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি (আইআরসি) নতুন এক রিপোর্টে দাবি করেছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের অর্থায়নে পরিচালিত অভ্যর্থনা ও শনাক্তকরণ কেন্দ্রগুলোতে প্রায় ১৫ হাজার মানুষ আটকা পড়ে আছে। আশ্রয়ের আশায় অন্তত পাঁচ বছর ধরে তারা সেখানে আটকে আছে।

সেখানে অবস্থানরত ৯০৪ জনের মানসিক অবস্থা পর্যালোচনা করে আইআরসি বলছে, প্রতি তিনজনে একজনের মনে আত্মহত্যার চিন্তা রয়েছে, আর প্রতি পাঁচজনে একজন আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে।

৩২ বছর বয়সী আফগান নারী ফারিবা বলেন, আমি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আমার ছেলে ওই সময় আমাকে দেখে ফেলায় আমার স্বামীকে ডাক দেয়।

তিনি আরো বলেন, আমি সব সময় মৃত্যুর ব্যাপারে ভাবি। যদি আমি পরিবারের সবার খাবারে ওষুধ মিশিয়ে দিই এবং সবাই মারা যাই, সেটাই ভালো হবে। কিন্তু আমি যখন আমার মেয়ের দিকে তাকাই, মনে হয় তার তো এখনো চলে যাওয়ার (মারা যাওয়ার) সময় হয়নি।

সূত্র : আল-জাজিরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »