Ultimate magazine theme for WordPress.

গণধর্ষণের শাস্তি ৯ বছরই থাকল ব্রাজিল তারকার

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

ব্রাজিলের ফুটবল ইতিহাসে একটা উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় নক্ষত্রের পতন কত বাজেভাবে হয়েছে, রবিনিওর ক্যারিয়ারে সেটি হয়তো উদাহরণই হয়ে থাকবে। মাত্র ১৯ বছর বয়সেই রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন তিনি। জিদান-বেকহাম-রাউলদের রিয়ালে ১০ নম্বর জার্সিটাও ছিল তার দখলে।

অনেক ব্রাজিলিয়ানের মতো নৈশক্লাবের ছটা, নারীসঙ্গের লোভ সামলাতে পারেনি এই ফুটবল তারকা। এই সঙ্গদোষ আর তার অগোছালো জীবনের অভ্যাসই হয়তো রবিনিওর ফুটবলে বাজে প্রভাব ফেলেছে, যা তার ফুটবল ক্যারিয়ারে কালো দাগ হয়ে আছে।

রিয়াল, ম্যানচেস্টার সিটি ঘুরে এসি মিলানে ৫ বছর থাকাকালীন মিলানের নৈশক্লাবে এক অপরাধের সঙ্গে জড়িয়েছিলেন তিনি। সেখানেই রবিনিওর বিরুদ্ধে আলবেনিয়ান বংশোদ্ভূত ২৩ বছর বয়সী এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল। ফলে ২০১৭ সালে সেটির রায়ে ৯ বছর জেলের সাজা হয়েছিল রবিনিওর। তখন থেকেই ইতালিতে যাননি রবিনিও।

নিজের শৈশবের ক্লাব সান্তোসে ফিরেছিলেন কিছুদিন আগে। ঘরে ফিরে আবেগের বশে রবিনিও-ও জানিয়েছিলেন, প্রিয় ক্লাবকে সাহায্য করাই তার লক্ষ্য, যে কারণে একদম সর্বনিম্ন বেতনের চুক্তি করেছিলেন। কিন্তু প্রিয় ক্লাবের সঙ্গে রবিনিওর এই মধুর মিলনে বাধা হয়ে দাঁড়ায় ব্রাজিল তারকার কালো অতীত। এর মধ্যেই ধর্ষণকাণ্ডের জের ধরে রবিনিওর সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে সান্তোস। যদিও বারবার নিজেকে নিরপরাধ দাবি করে এসেছেন এই ব্রাজিল তারকা।

নিজের অপরাধ কমাতে আপিল করেছিলেন মিলান কোর্টে। কিন্তু তার অপরাধের শাস্তি একটুও কমাননি মিলান কোর্টের বিচারক। আপিলের পরও রবিনিওর শাস্তি একটুও কমাননি মিলানের কোর্ট। ৯ বছরেই বহাল রেখেছেন তার অপরাধের শাস্তি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »