Ultimate magazine theme for WordPress.

ইউরোপে অভিবাসীদের নিয়ন্ত্রণে নতুন নিয়ম

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

বিশ্বের অনুন্নত দেশগুলো থেকে ইউরোপ অভিমুখী স্বপ্নযাত্রায় অভিবাসীদের ঢল লক্ষ্য করা যায়। তবে এর মধ্যে অনেকেই ভিসা নিয়ে প্রবেশ করে এবং অনেকে স্থল এবং সমুদ্র পথে পা বাড়ায়।

জার্মান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্সি এবং ইউরোপীয় সংসদ ৮ ডিসেম্বর ভিসা ইনফরমেশন সিস্টেম রেগুলেশন সংশোধন করে একটি খসড়া নিয়ন্ত্রণের মূল উপাদানগুলোর ওপর একটি অস্থায়ী চুক্তিতে পৌঁছেছে। এই বছরের শেষে এই বিষয়ে সম্মতি দেওয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছে। সেই বিষয়ে এখন প্রযুক্তিগত পর্যায়ে আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

ভিসা বা রেসিডেন্ট পার্মিট অনুমতি দেওয়ার আগে, নতুন নিয়মগুলোর সাহায্যে আবেদনকারীর প্রাসঙ্গিক সুরক্ষা এবং মাইগ্রেশন ডেটাবেজে সেনজেন ইনফরমেশন সিস্টেম (এসআইএস), এন্ট্রি-এক্সিট সিস্টেম (ইইএস), ইউরোপীয় ভ্রমণ তথ্য অনুমোদনের সিস্টেমসহ (ইটিআইএএস), ইউরোডাক, ইউরোপল ডেটা, ইসিআরআইএস-টিসিএন এবং ভ্রমণের নথিতে প্রাসঙ্গিক ইন্টারপোল ডাটাবেস।

ভিআইএস স্বয়ংক্রিয়ভাবে এই ডেটাবেসগুলোর একটি কোয়েরি চালু করবে। কোন আগত তথ্য ম্যানুয়ালি যাচাই করা হবে এবং যথাযথ কর্তৃপক্ষ দ্বারা অনুসরণ করা হবে। উক্ত পরিস্থিতিতে ভিসা নিয়ে যদি কেউ ইউরোপে প্রবেশ করে সে ক্ষেত্রে অ্যাসাইলাম আবেদনের ক্ষেত্রে জটিলতার সম্মুখীন হতে পারে। কেননা ইউরোডাকে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে অ্যাসাইলাম আবেদনকারী সকলের বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন করা থাকে।

বায়োমেট্রিক ও সেনজেন ইনফরমেশন শেয়ার করার কারণে একাধিক দেশে আশ্রয় আবেদন বা রেসিডেন্ট আবেদন করবে সেক্ষেত্রে তাদেরকে জটিলতার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

কয়েকটি বিষয় টার্গেট করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে বিশেষ করে ইউরোপীয় নাগরিকদের সুরক্ষা, অপরাধ এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন, নিরাপদ বর্ডার তৈরি করা এবং অভিবাসীদের নিয়ন্ত্রণ। এই সিস্টেমটি কিছু অংশ ২০২১ সালে এবং অবশিষ্টাংশ ২০২২ সালে কার্যকর করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রস্তাবিত নতুন বিধিগুলোর অধীনে ভিআইএসে কেবল আগের মতো স্বল্প-মেয়াদী ভিসার তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা হবে না। তবে দীর্ঘকালীন ভিসা এবং আবাসনের অনুমতিও অন্তর্ভুক্ত থাকবে। কারণ এই নথিগুলো সেনজেন অঞ্চলে অবাধে চলাচলের অনুমতি দেয়। এই ডকুমেন্টগুলোকে একটি কেন্দ্রীয় ডাটাবেসে নিবন্ধভুক্তকরণ কর্তৃপক্ষকে তাদের সত্যতা এবং বৈধতা যাচাই করতে সহায়তা করবে।

এছাড়াও ভ্রমণকারীর ভ্রমণের নথির জীবন বৃত্তান্ত সংক্রান্ত তথ্য পৃষ্ঠার একটি স্ক্যান ভিআইএসে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এটি তৃতীয় দেশের নাগরিকদের অবৈধভাবে দেশে ফিরে যাওয়ার সুবিধার্থে ডেটা ভিআইএসে সংরক্ষণ করা হবে। যদি তাদের দেশে ফিরে যাওয়ার প্রমাণ না পাওয়া যায় তবে এর অনুলিপি তৃতীয় দেশগুলো জাতীয়তার প্রমাণ হিসাবে স্বীকৃত হতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »