Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের ফ্যামিলি ভিসার জন্য জাল সনদ দিলে ৬ বছরের কারাদণ্ডসহ পার্মানেন্ট ডকুমেন্টস বাতিল হতে পারে।

১৯৪০ সালের ৭ ডিসেম্বরের ডিক্রি আইনের ২,৮৪৮ এর ২৯৭ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে দুই বছর থেকে ৬ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে । সেই সাথে তাদের ব্রাজিলের পার্মানেন্ট ডকুমেন্ট ক্যানসেল করার সম্ভাবনা রয়েছে ।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ব্রাজিল ডেস্ক ♦

ব্রাজিলে অবস্থানরত সকল বিদেশী নাগরিকদের সতর্ক করা হয়েছে। বর্তমানে যারা ব্রাজিলে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন পার্মানেন্ট রেসিডেন্সি বা রেসিডেন্ট পার্মানেন্ট কার্ড নিয়ে । সাম্প্রতিক সময়ে যথেষ্ঠ অনিয়মের কিছু তথ্য পাওয়া গেছে ।ব্রাজিলে অভিবাসন আইন অনুযায়ী কোন বিদেশী নাগরিক যদি ব্রাজিলে স্থায়ী পার্মানেন্ট রেসিডেন্সি কার্ড নিয়ে বসবাস করেন তাহলে সে চাইলে তার পরিবারকে ব্রাজিলে আমন্ত্রণ জানিয়ে নিয়ে আসতে পারবেন। সেই ক্ষেত্রে আবেদনকারী তার বাবা-মা , স্ত্রী-সন্তান বা স্বামীকে আমন্ত্রণ জানাতে পারবেন এবং তারা নিজ দেশ থেকে ব্রাজিল হাই কমিশনে তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে পার্মানেন্ট ভিসা নিয়ে ব্রাজিলে আসতে পারবেন । বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে সাম্প্রতিক সময়ে একাধিক বিদেশি নাগরিক এই আইনের সুযোগ নিয়ে ফেক পরিবার বানিয়ে ব্রাজিলের ভিসা করে ব্রাজিলে তাদের ফ্যামিলি নিয়ে এসেছেন টাকার বিনিময়ে । এছাড়া সম্প্রতি বাংলাদেশে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে ব্রাজিলিয়ান মেয়েদের সাথে প্রেমের নাটক করে একাধিক বাংলাদেশি ব্রাজিলে আসার নীল নকশা তৈরি করেছিলেন।

সন্তান ও স্ত্রী বানিয়ে অনেকে ব্রাজিলের ভিসার জন্য  আবেদন করেছেন ব্রাজিল হাইকমিশনে। যদিও সেই ভিসা গুলো সম্প্রতি অ্যাপ্রুভ হয়ে গিয়েছে কিন্তু বর্তমানে সেই সকল ভিসার ব্যাপারে তদন্ত চলছে যদি কোন প্রকার জাল প্রমাণ মিলে তাহলে তাদের ব্যাপারে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান হাইকমিশ। ১৯৪০ সালের ৭ ডিসেম্বরের ডিক্রি আইনের ২,৮৪৮ এর ২৯৭ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে দুই বছর থেকে ৬ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে । সেই সাথে তাদের ব্রাজিলের পার্মানেন্ট ডকুমেন্ট ক্যানসেল করার সম্ভাবনা রয়েছে ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »