Ultimate magazine theme for WordPress.

পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী দেশ জ্যামাইকা!

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক♦

ক্যারিবিয়ান সাগরের বিখ্যাত সব দ্বীপগুলোর মধ্যে জ্যামাইকা অন্যতম। দেশটিকে অনেকেই উসাইন বোল্ট , বব মারলেদের জন্মভূমি হিসেবে চেনেন। তবে এছাড়াও দেশটিতে রয়েছে এমন সব বিচিত্রতা যা একে অনন্য এক দ্বীপদেশে পরিণত করে তুলেছে। দেশটি সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য থাকছে আজ-

১। জ্যামাইকা ব্লু মাউন্টেইন কফির জন্য বিখ্যাত। ব্লু মাউন্টেইন পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বিরলতম কফি।

২। মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ইতিহাসে এখন পর্যন্ত ৩ জন চ্যাম্পিয়ন ও ৩ জন রানার আপ হয়েছেন জ্যামাইকা থেকে। দেশটিকে সুন্দরীদের দেশ বলা হলেও কিন্তু অত্যুক্তি হবে না !

৩। ক্যারিবীয় দেশগুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম ওয়েবসাইট চালু করার কৃতিত্ব জ্যামাইকার। ওয়েবসাইটটির নাম ছিলো জ্যামাইকাট্রাভেল ডট কম।

৪। র‍্যাপ ও হিপহপ সঙ্গীতের পথচলা শুরু হয় শিল্পী কুল হারকের হাত ধরে। তিনি ছিলেন জ্যামাইকান। ২০১৭ সালের ১১ আগস্ট হিপহপ মিউজিকের ৪৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে গুগল একটি বিশেষ ডুডোল তৈরি করে কুল হারককে সম্মান জানায়।

৫। জ্যামাইকায় একসঙ্গে দুই বা তার অধিক সন্তান জন্মদানের হার পৃথিবীর অন্য যেকোনো দেশের তুলনায় বেশি!

৬। হিলিং ওয়াটার্স অফ জ্যামাইকা নামে জ্যামাইকাতে বিশেষ খনিজ মিশ্রিত পানি পাওয়া যায়, যা এর ভেষজ গুণের জন্য পৃথিবী বিখ্যাত।

৭। জ্যামাইকার কিংস্টন হারবার হলো পৃথিবীর সপ্তম বৃহত্তর প্রাকৃতিক পোতাশ্রয়।

৮। প্রথম ব্রিটিশ উপনিবেশ হিসেবে ১৬৮৮ সালে জ্যমাইকাতে পোস্টাল সার্ভিস চালু হয়।

৯। কলার উৎপাদনের জন্যও কিন্তু জ্যামাইকা বেশ বিখ্যাত। পশ্চিমা বিশ্বের মধ্যে জ্যমাইকাই সর্বপ্রথম বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কলা উৎপাদন শুরু করে।

১০। পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী দেশগুলোর মধ্যে জ্যামাইকা অন্যতম।

১১। ১৯৬২ সালে জ্যামাইকা প্রথম ক্যারিবিয়ান দেশ হিসেবে ব্রিটিশদের থেকে স্বাধীনতা লাভ করে।

১২। ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার বাইরে প্রথম দেশ হিসেবে ১৮৪৫ সালে জ্যমাইকা রেলওয়ে লাইন স্থাপন করা হয়।

১৩। জ্যামাইকার আদিম অধিবাসীরা তাইনো নামে পরিচিত ছিলো। কিন্তু স্প্যানিশদের আক্রমণ ও অত্যাচার এবং বিভিন্ন মহামারীর কারণে তাইনো আদিবাসীরা বিলুপ্ত হয়ে গেছে অনেক আগেই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »