Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের ৩৭তম রাষ্ট্রপতি ইতামার আউগুস্তু ফ্রাঁকু লাগামহীন মুদ্রাস্ফীতি রোধের লক্ষ্যে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ব্রাজিলের নতুন মুদ্রা রেয়ালের প্রচলন করেন।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ব্রাজিল ডেস্ক♦

ইতামার আউগুস্তু ফ্রাঁকু – জন্ম ২৮শে জুন, ১৯৩১ সাল । তিনি ১৯৯২ সাল থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি ছিলেন।

ফ্রাঁকু কর্মজীবনের শুরুতে ছিলেন মিনাস জেরাইস রাজ্যের একজন প্রকৌশলী। ১৯৫৫ সালে তিনি জুইস দি ফুরা-র প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরকৌশলে স্নাতক ডিগ্রি নেন। ১৯৬৭ সালে তিনি স্বীয় শহর জুইস দি ফুরা-র মেয়র নির্বাচিত হন ।  ১৯৭১ সাল পর্যন্ত সে মেয়র ছিলেন। ১৯৭৩ সালে তিনি আবার সেখানকার মেয়র নির্বাচিত হন। ১৯৭৪ সালে তিনি মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেন এবং সামরিক জান্তার মতের বিরুদ্ধে মিনাস জেরাইস রাজ্যের সিনেটে নির্বাচিত হন। ১৯৮২ সালে তিনি আবার একই আসন থেকে সিনেটে নির্বাচিত হন। কিন্তু ১৯৮৬ সালে তিনি রাজ্যটির গভর্নর নির্বাচনে পরাজিত হন। ১৯৮৮ সালে ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি সার্নেইয়ের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য যে কমিটি গঠন করা হয়, তিনি তার সভাপতি ছিলেন। ১৯৮৯ সালে ব্রাজিলের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রার্থী ফের্‌নাঁদু কলর দি মেলু-র নিবাচনী প্রচারণায় অবদান রাখেন এবং কলর রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলে এর প্রতিদানে তিনি উপ-রাষ্ট্রপতি পদ লাভ করেন।  তিনি কিছু সময় পর কলরের দল ত্যাগ করেন। দুর্নীতির অভিযোগে ১৯৯২ সালের অক্টোবরে কলর অভিযুক্ত হলে ফ্রাঁকু দেশের শাসনভার হাতে নেন এবং কলরের পদত্যাগের পর ২৯শে ডিসেম্বর দেশটির রাষ্ট্রপতি হন। ব্রাজিলের লাগামহীন মুদ্রাস্ফীতি (১৯৯৩ সালে এর পরিমাণ ছিল প্রায় ৬০০০%) রোধের লক্ষ্যে তিনি ব্রাজিলের মুদ্রাব্যবস্থার সংস্কার করেন এবং মার্কিন ডলারের বিপরীতে ব্রাজিলের নতুন মুদ্রা রেয়ালের প্রচলন করেন। ১৯৯৪ সালে তিনি সাংবিধানিক সংস্কারের মাধ্যমে ব্রাজিলের গণতান্ত্রিক ও উদারনৈতিক ভিত্তি শক্ত করার প্রয়াস পান। এই সংস্কারে রাষ্ট্রপতির মেয়াদ ৪ বছরের জন্য সীমাবদ্ধ করা হয় এবং প্রথমবারের মত ব্রাজিলের আদিবাসী আমেরিকানদের আংশিক স্বায়ত্বশাসন দেয়া হয়। শাসনকাল শেষ হবার পর তিনি পরবর্তী নির্বাচন বিজেতা ফের্‌নাঁদু এঁরিকি কার্দোজু-র হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন। উল্লেখ্য, কার্দোজু তার সরকারের অর্থমন্ত্রী ছিলেন। এরপর তিনি পর্তুগালে ও পরবর্তীতে ওয়াশিংটন ডিসি-তে অর্গানাইজেশন অফ আমেরিকান স্টেট্‌স-এ ব্রাজিলের দূত হিসেবে কাজ করেন। ১৯৯৮ সালে তিনি মিনাস জেরাইস রাজ্যের গভর্নর হন ও ২০০৩ সাল পর্যন্ত সেখানে ছিলেন। এরপর তিনি ইতালিতে ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেন এবং ২০০৫ সালে পদটি ছেড়ে দেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »