Ultimate magazine theme for WordPress.

মন্দিরে চুুম্বন দৃশ্যের আপত্তি, নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে মামলা

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক♦

মুক্তি পাওয়ার প্রায় এক মাস পরে শিরোনামে উঠে এল মীরা নায়ার পরিচালিত সিরিজ ‘আ স্যুটেবল বয়’। ওই সিরিজের কিছু দৃশ্যে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগে ভারতের বিজেপি নেতা গৌরব তিওয়ারি এফআইআর দায়ের করেছেন নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে। খবর আনন্দবাজারের।

ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার জাতীয় সম্পাদক গৌরব টুইটে লিখেছেন, ‘আ স্যুটেবল বয় সিরিজে, নেটফ্লিক্স তিনটি চুম্বনের দৃশ্য দেখানো হয়েছে। তার মধ্যে একটি পর্বে মন্দিরের ভেতরে একটি চুম্বনের দৃশ্য দেখানো হয়েছে।’

তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, হিন্দু মেয়ের সঙ্গে মুসলিম ছেলের প্রেমের গল্পে সব চুম্বন দৃশ্যই কেন মন্দির প্রাঙ্গণের ভেতরে দেখানো হয়েছে। এজন্য মধ্যপ্রদেশের রেওয়ায় তিনি এফআইআর দায়ের করেন।

সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় গৌরব জানিয়েছেন, চুম্বন দৃশ্যের বিরোধিতা তিনি করছেন না। কিন্তু মন্দিরে আরতি চলাকালীন সেই দৃশ্যগুলো শুট করা নিয়ে তিনি আপত্তি জানিয়েছেন।

নির্মাতাদের উদ্দেশে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, মসজিদে আজান চলাকালীন এমন দৃশ্য শুট করতে পারতেন? এতটা শৈল্পিক স্বাধীনতা কি পাওয়া যেত? হিন্দুদের সহিষ্ণুতাকে তাদের দুর্বলতা ভাববেন না। এতে শুধু মধ্যপ্রদেশেরই নয়, ভগবান শিব এবং তার কোটি কোটি ভক্তের আবেগকে অপমানিত করা হয়েছে। আপনাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত।

গৌরব জানান, শিব ভক্তদের জন্য রানি অহল্যাবাঈ হোলকার মহেশ্বর ঘাটটি উৎসর্গ করেছিলেন। প্রস্তর যুগের হাজার হাজার শিবলিঙ্গ এই ঘাটকে গৌরবান্বিত করে। ধর্মীয় স্থানে ‘লাভ জিহাদ’ প্রচার করা এবং হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে বলে তার অভিযোগ। এর জন্য নেটফ্লিক্সকে তিনি ধিক্কার জানিয়ে নিজের ফোন থেকে ইতিমধ্যেই নেটফ্লিক্স অ্যাপটি মুছে দিয়েছেন।

অন্য দিকে মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্রও ঘটনাটি নিয়ে ক্ষুব্ধ। তিনি জানিয়েছেন, আমি কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি নেটফ্লিক্স এবং ওই সিরিজের পরিচালক-প্রযোজকদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনি পদক্ষেপ করা যায়, তা খতিয়ে দেখতে।

বিক্রম শেঠের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি এই সিরিজ ২৩ অক্টোবর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে। টাবু, ঈশান খট্টর, তানিয়া মানিকতলা, রসিকা দুগ্গল মতো অভিনেতাদের দেখা যাচ্ছে এই সিরিজে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »