Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের গুইয়ানিয়া রাজ্যটি এক সময় কানাডার আলবার্তো, অ্যাডমন্টনের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হিসাবে বিবেচিত হতো ।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক♦

গুইয়ানিয়া ব্রাজিলিয়ান রাজ্যের গুয়াইস এর রাজধানী এবং বৃহত্তম শহর, ১,৪৬্‌১০৫ জনসংখ্যার  ব্রাজিলের মধ্য-পশ্চিম অঞ্চলের দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং দেশের দশম বৃহত্তম শহর। এর মেট্রোপলিটন অঞ্চলটির জনসংখ্যা ২,৬৫৪,৮৬০ এটি ব্রাজিলের ১২ তম বৃহত্তম অঞ্চল । প্রায় ৭৩৩৯ বর্গকিলোমিটার (২৮৫ বর্গমাইল) আয়তন । এর বেশিরভাগ অঞ্চল, বিশেষত মিয়া পন্টে নদীর সমতল ভূমি সমেত বোটাফোগো এবং ক্যাপিম পাবার স্রোত ও কয়েকটি পাহাড় এবং নিম্নভূমি সহ ধারা পরিবেষ্ঠিত।

নতুন রাজ্যের রাজধানী ও প্রশাসনিক কেন্দ্র হিসাবে কাজ করার জন্য তত্কালীন গভর্নর পেড্রো লুডোভিচো ১৯৩৩ সালের ২৪ শে অক্টোবর প্রতিষ্ঠা করেছিলেন গুইয়ানিয়া রাজ্যের রাজধানী বা গুয়াইস শহর।

গুয়াইস মধ্য-পশ্চিম অঞ্চলের দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল শহর, গুইয়ানিয়া কেবলমাত্র রাজধানী ব্রাসলিয়া থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার (১২০ মাইল) দূরে অবস্থিত। শহরটি এই অঞ্চলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক কেন্দ্র এবং শিল্প, চিকিত্সা, ফ্যাশন এবং কৃষির মতো অঞ্চলের জন্য এই রাজ্যটি কৌশলগত কেন্দ্র হিসাবে বিবেচিত হয়। গুইয়ানিয়া এর আগে ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় সবুজ অঞ্চল এবং কানাডার আলবার্তো, অ্যাডমন্টনের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হিসাবে বিবেচিত হতো । জনসংখ্যার দ্রুত বৃদ্ধি এবং শহুরে সম্প্রসারণের সাথে বদলে গেছে মানচিত্রের সেই চিত্র।

নতুন এই রাজ্যের রাজধানী তৈরির ধারণা গুয়াইস রাজ্যে প্রথম থেকেই বাউন্স হয়েছিল। প্রথম পরিকল্পনাটি ডি মারকোস ডি নরোনাহার কাছ থেকে এসেছিল। যিনি.১৭৫৩ সালে পাইরেনেপোলিস পৌরসভায় রাজ্যের রাজধানী প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন; আবার ১৮৬৩ সালে জোসে ভিইরা কৌটো দে ম্যাগালিস রাজধানীটিকে আরগুইয়া নদীর ধারে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা পেশ করেন।

এই রাজ্যের রাজধানী স্থানান্তরের চেষ্টার পেছনের গতি ছিল রাজ্যের অর্থনৈতিক স্বার্থ অনুসারে ।  অর্থনীতি সোনার উত্তোলনের উপর ভিত্তি করে যখন প্রথম রাজ্যের রাজধানী, ভিলা বোয়া (বর্তমানে গুয়াইস এর শহর) বেছে নেওয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে, গবাদি পশুর পালন ও কৃষিক্ষেত্র যখন রাজ্যের উন্নয়নে আধিপত্য বিস্তার করেছিল, তখন পুরাতন রাজধানী প্রত্যন্ত হিসাবে বিবেচিত হল।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »