Ultimate magazine theme for WordPress.

কুড়িগ্রামে গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে ৪ জন আটক

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ডেস্ক♦

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগে ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের বড়ুয়া তবকপুর গ্রামের কায়সার আলী, আবু বক্কর, সোবাহান আলী লিটন এবং মোমিনুল ইসলাম।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উলিপুর পৌরসভার বলদীপাড়া গ্রামের এক সন্তানের জননী গৃহবধূর সাথে একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর পুত্র রবিউল ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূকে ডেকে নেয় রবিউল। পরে তার সহযোগী আবু বক্করকে সাথে নিয়ে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাযোগে উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের বড়ুয়া তবকপুর রাজারঘাট গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র মোমিনুলের বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর নির্জন বাড়িতে রবিউল ইসলামসহ আটক ৪ জন ওই গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ব্যক্তি বলেন, মূল হোতা রবিউলের সাথে গৃহবধূর পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। ঘটনার দিন রবিউলসহ অন্যান্যরা গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি প্রকাশিত হলে রবিউলসহ অন্য আসামিরা স্থানীয় মাতব্বর দ্বারা ভয়ভীতি দেখিয়ে মীমাংসা করার চেষ্টা চালায়। কিন্তু ব্যর্থ হবার পর ভুক্তভোগী গৃহবধূ আইনের দ্বারস্থ হয়।

এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদি হয়ে উলিপুর থানায় শনিবার সকালে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ কায়সার আলী, সোবাহান আলী, আবু বক্কর ও মোমিনুল ইসলামকে আটক করে জেলহাজতে পাঠায়।

উলিপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মূল হোতা রবিউলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »