Ultimate magazine theme for WordPress.

রাঙ্গামাটিতে ছাত্রীকে ধর্ষণ, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ডেস্ক♦

রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলায় ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আব্দুর রহিম নামের এক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতির কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে ভুক্তভোগী ছাত্রী। বিচার না পেয়ে সোমবার রাতে লংগদু থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ২৫ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই ছাত্রী (১৬) ছাগল খুঁজতে বিদ্যালয়ের দিকে যায়। খোঁজাখুঁজি শেষে ফেরার পথে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম ছাত্রীটিকে লেবু দেয়ার জন্য বিদ্যালয়ের পেছনের ছাত্রাবাসের একটি কক্ষে ডাকেন।

স্কুলছাত্রী কক্ষে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আব্দুর রহিম দরজা বন্ধ করে ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। সেই সঙ্গে বিষয়টি কাউকে বললে প্রাণনাশের হুমকি দেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঙ্গলকান্তি চাকমা বলেন, ধর্ষণের শিকার ছাত্রী ১ অক্টোবর লিখিত অভিযোগ দেয়। ব্যস্ততার কারণে বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে বসতে পারিনি। মঙ্গলবার এ বিষয়ে বৈঠকে বসা হবে। অভিযোগের সত্যতা যাচাই করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ছাত্রীর মা বলেন, আমার মেয়ে এ বছর ওই বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেছে। আমি নিজেও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির একজন সদস্য। আমার মেয়ে যদি শিক্ষকের কাছে নিরাপদ না থাকে তাহলে অন্যদের বেলায় কী হবে? আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

ছাত্রীর বাবা বলেন, ঘটনার পরপরই এলাকার মুরুব্বিদের সঙ্গে আলোচনা করে এলাকার চেয়ারম্যান ও স্কুল কমিটির সভাপতি মঙ্গলকান্তি চাকমাকে জানাই। তিনি দেখবেন বলে আমাদের আশ্বস্ত করেন। কিন্তু মৌখিক অভিযোগের ছয়দিন পরও কোনো ব্যবস্থা না হওয়ায় ১ অক্টোবর আমার মেয়ে লিখিত অভিযোগ দেয়। আমরা দরিদ্র বলে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার এখনও পাইনি। আমার মেয়ের সর্বনাশ যে করেছে আমি তার উপযুক্ত শাস্তি চাই।

অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রহিম বলেন, আমার স্কুলে ভবন নির্মাণের কাজ চলছে, তাই প্রায় সময়ই আমি স্কুলে যাই। ২৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার আমি স্কুলে গিয়েছিলাম। কিন্তু অভিযোগকারী ওই ছাত্রীর সঙ্গে আমার দেখাই হয়নি। ছাত্রীটিকে জোর করে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেয়ানো হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত করলেই সত্য-মিথ্যা বেরিয়ে আসবে।

লংগদু থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মোহাম্মদ নূর বলেন, সোমবার রাতে ছাত্রীর মা মামলা করেছেন। মামলাটি তদন্ত করে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »