Ultimate magazine theme for WordPress.

তুরস্ক হয়ে ইউরোপে যাওয়া অসম্ভব একটি প্রয়াস যা বিপদজনক।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক ♦

অবৈধভাবে ইউরোপ যাবার আশায় তুরস্কে আটকে পড়েছে ৪ হাজারের মতো বাংলাদেশি।

এদের মধ্যে কয়েকশ ব্যক্তিকে আটক করেছে তুরস্কের পুলিশ। কিন্তু কাগজপত্রবিহীন এই অভিবাসীদের অনেকে বাংলাদেশে ফেরত যেতে চাইলেও আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় তারা পড়েছেন উল্টো সংকটে।

ইউরোপে মানব পাচারকারীদের কাছে তুরস্ক হয়ে গ্রীসে বা ইউরোপে প্রবেশ করাটা বেশ জনপ্রিয় একটি পথ, যদিও সম্প্রতি ইউরোপের সঙ্গে তুরস্কের একটি সমঝোতার পর এই এই রুট কঠিন হয়ে উঠেছে। দালালদের মাধ্যমে ইউরোপে যেতে গিয়ে তুরস্কে আটকে পড়েছে অনেক বাংলাদেশীও।

তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত  বলছেন, ”আমরা যতটুকু জানতে পেরেছি যে, এখানে বিভিন্ন সময়ে আসা বাংলাদেশি নাগরিক চারশো বা একটু বেশি, তারা অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের জন্য বিভিন্ন জায়গায় আটক অবস্থায় আছেন। তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য আমরা সর্বান্তকরণ চেষ্টা করছি।”

তিনি বলছেন, ”এই দেশে মোট ৪ হাজার বাংলাদেশি আসছেন বলে আমাদের অনুমান। তবে এটা কতটুকু সত্যি বলতে পারছি না, শুধু আমরা অনুমান করছি।”

রাষ্ট্রদূত বলছেন, ”এটা আমরা সবাইকে সতর্ক হওয়ার জন্য বলছি যে, তুরস্ক হয়ে ইউরোপে যাওয়া সম্ভব নয়, এটা অসম্ভব একটি প্রয়াস যা বিপদজনক, এরকম চেষ্টা না করার জন্য আমরা সবাইকে অনুরোধ করছি।”

দূতাবাসের কর্মকর্তারা বলছেন, এদের অনেকে এখনো ইউরোপে যাবার জন্য মরীয়া। এদের অনেকেই ইরান, লেবানন বা জর্ডানের বৈধ চাকরি ছেড়ে দিয়ে এই পথে নেমেছেন। একদিকে তুরস্কে তারা যেমন শোষণের শিকার হচ্ছেন, তেমনি তাদের ব্যবহার করছে অপরাধী চক্রও। কিন্তু এদের মধ্যে যারা ইউরোপ যাবার আশা ছেড়ে দিয়ে এখন দেশে ফেরত যেতে চান, তারাও পড়েছেন উল্টো বিপদে।

কারণ কাগজপত্র বিহীন এই বাংলাদেশীদের ট্রাভেল পারমিট দিতে পারছে না দূতাবাস, কারণ যাচাই না করে এই পারমিট না দেয়ার একটি পরিপত্র জারি করেছে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »