Ultimate magazine theme for WordPress.

তুরস্ক-গ্রিসের উত্তেজনা নিরসনে আলোচনায় বসতে রাজি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক ♦

পূর্ব ভূমধ্যসাগরে গ্রিস এবং তুরস্কের মধ্যে চলমান উত্তেজনার সমাধানে আলোচনা প্রস্তুত আঙ্কারা। এমনটাই বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।  তিনি বলেছেন, গ্রিসের শীর্ষ নেতার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে প্রস্তুত তুরস্ক।
শুক্রবার জুমার নামাজ আদায়ের পর তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, গ্রিসের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার বৈঠক হতে পারে।  তার সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করা জরুরি।
তিনি আরো বলেন, গ্রিস চাইলে আমরা সাক্ষাৎ করতে পারি।  আমরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলতে পারি অথবা তৃতীয় কোনো দেশে আলোচনায় বসতে পারি।
এদিকে, তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনার বিষয়ে শুক্রবার গ্রিক প্রধানমন্ত্রী নিকোস ডেনডিয়াস বলেন, গ্রিস বিশ্বাস করে যে, এ বিষয়ে আলোচনা শুরু হওয়া উচিত এবং আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করা উচিত নয়। তিনি আরও বলেন, ওই এলাকায় জোর করে কারও বিজয়ী হওয়ার চেষ্টা করা অবশ্যই উচিত নয়। তুরস্কের সঙ্গে আলোচনা করতে গ্রিস সব সময়ই প্রস্তুত।
গ্যাস-সমৃদ্ধ পূর্ব ভূমধ্যসাগরে অনুসন্ধান নিয়ে আশপাশের দেশগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্বের বিষয়টি নতুন কিছু নয়। তুরস্ক, গ্রিস, সাইপ্রাস, ইসরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই এ বিষয়ে বিরোধ চলছে।
কিন্তু কিছুদিন আগেই গ্রিক দ্বীপ কাস্তেলোরিজো উপকূলে তুরস্ক তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে ওরাক রেইস নামে একটি জাহাজ পাঠানোর পর থেকেই নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়। জাহাজটির নিরাপত্তায় সঙ্গে রয়েছে তুর্কি নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজের ছোটখাটো একটি বহর।
গ্রিসও তুর্কিদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণে ওই অঞ্চলে যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করে। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে কিছুটা সংঘর্ষ বেধে যায়। গ্রিস এ ঘটনাকে দুর্ঘটনা বললেও তুরস্ক এটিকে উসকানি বলে দাবি করেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »