Ultimate magazine theme for WordPress.

শ্রীলঙ্কার শর্ত মেনে টেস্ট খেলা সম্ভব নয় : নাজমুল হাসান পাপন।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ডেস্ক ♦ 

করোনা পরবর্তী সময়ে শ্রীলঙ্কা সফরের মাধ্যমে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কথা থাকলেও তা অনিশ্চিত হয়ে গেল। মূলতঃ কোয়ারন্টিন সময় এবং অনুশীলন নিয়ে দুই বোর্ডের মাঝে মতৈন্যকের সৃষ্টি হয়েছে। সফরের জন্য বাংলাদেশকে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড যেসব শর্ত দিয়েছে, তাতে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এত সব শর্ত মেনে বাংলাদেশ সফরে যাবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কা যাওয়ার কথা বাংলাদেশের। আজ সোমবার সফরের শর্তগুলো নিয়ে বিসিবির অন্য পরিচালকদের সঙ্গে মিটিং শেষে দুপুর সাড়ে ৩টায় মিডিয়ার মুখোমুখি হয়ে পাপন বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা আমাদেরকে যে শর্ত দিয়েছে, সেটা মেনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ কেন, কোনো কিছুই খেলতে যাওয়া সম্ভব নয়। আমরা আমাদের অবস্থান পরিষ্কারভাবে তাদেরকে জানিয়ে দিয়েছি। এখন তারা যদি শর্ত রিভিউ করে, তাহলে আমরা পরবর্তী বিবেচনা করব। কিন্তু শর্ত পরিবর্তন না করা পর্যন্ত আমরা সফরে যাব না।’

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। কোয়ারেন্টাইন নিয়ে বিরোধের কারণেই টেস্ট সিরিজ নিয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক সূচি প্রকাশ করেনি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের শর্ত হলো, বাংলাদেশ দলকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। বিসিবি বলছে, ১৪ দিন নয়, ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবে টাইগার ক্রিকেটাররা। লঙ্কানদের আরেক শর্ত হলো, সফরে নেট বোলার নিয়ে যাওয়া যাবে না।

এসএলসি শর্ত দিয়েছে যে, বাংলাদেশ দল সেখানে যাওয়ার পর কোয়ারেন্টাইনের সময়টাতে হোটেলের রুম থেকেও বের হতে পারবে না। এখানেই বিসিবি সভাপতির বড় আপত্তি। তিনি আরও বলেন, ‘তারা শর্ত দিয়েছে আমরা ঘর থেকেও বের হতে পারবো না। এটা তো অতিরিক্ত। আমি আরও বেশ কিছু জায়গায় কথা বলেছি। সে সব জায়গায় তো এমন নেই। তাহলে তাদের মধ্যে এমন কোনো সমস্যা রয়েছে, যেটা আমরা জানতে পারছি না! তাহলে সেটা কি?’

এখন পর্যন্ত যে দিকনির্দেশনা আছে, তাতে শ্রীলঙ্কায় গিয়ে ডাম্বুলায় কোয়ারেন্টিনে থাকবে বাংলাদেশ দল। সেখানে এমনিতেই সবাই আইসোলেটেড হয়ে থাকবে বলে মত বিসিবি প্রধানের, ‘বাংলাদেশ দল সেখানে গিয়ে থাকবে ডাম্বুলায়। এমন নয় যে কলম্বোয় থাকছে। ডাম্বুলায় থাকা মানে এমনিতেই আইসোলেটেড। এর মধ্যে আবার হোটেলের মধ্যেও রুম থেকে বের হতে পারবে না- এসব দেখেই আমাদের মনে হয়েছে, এখানে ভিন্ন কিছু রয়েছে। আমাদের দলের সঙ্গে এসবের কোনো মিল নেই।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »