Ultimate magazine theme for WordPress.

আমাকে ‘বাঁদর’ বলা বর্ণবাদীর বিচার হবে না ? প্রশ্ন ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমারের ।

ঝগড়ার একপর্যায়ে আলভারো গঞ্জালেসের মাথার পেছনে চড় মারেন নেইমার। শুরু হয়ে যায় মারামারি। রেফারি ঝগড়া থামানোর পাশাপাশি কার্ড দেখানোতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা অনলাইন ডেস্ক :

রবিবার রাতে লিগ ওয়ানের ম্যাচে ফুটবলের চেয়ে বেশি চোখে পড়ল দুই দলের খেলোয়াড়দের সংঘর্ষের ঘটনা। বারবার ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ছিল পিএসজি এবং মার্সেইয়ের ফুটবলাররা। ঘরের মাঠে পিএসজি শুধু ১-০ ব্যবধানে হারেইনি, উল্টো নেইমারসহ দুই দলের ৫ জন দেখেছেন লাল কার্ড! হলুদ কার্ড দেখেছেন ১৭ জন। ম্যাচের পর সোশ্যাল সাইটে ঘটনার ব্যখ্যা করে আত্মপক্ষ সমর্থন করেছেন ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমার।

ঝামেলার শুরু হয় দুই আর্জেন্টাইন দারিও বেনেদেত্তো ও পিএসজির লিয়েন্দ্রো পারেদেসের মাঝে। সেই ঝগড়ায় যোগ দেন দুই দলের ফুটবলাররা। এমনিতেই ফ্রান্সে এ দুই দলের লড়াই অনেকটা রিয়াল মাদ্রিদ আর বার্সেলোনার মতো চরম উত্তাপ ছড়ায়। ঝগড়ার একপর্যায়ে আলভারো গঞ্জালেসের মাথার পেছনে চড় মারেন নেইমার। শুরু হয়ে যায় মারামারি। রেফারি ঝগড়া থামানোর পাশাপাশি কার্ড দেখানোতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

নেইমার দাবি করেছেন, গঞ্জালেস তাকে উদ্দেশ্য করে বর্ণবাদী মন্তব্য করেছেন। টুইটারে ব্রাজিল সুপারস্টার লিখেছেন, ‘আমার একটাই দুঃখ, এই বদমাশকে চর মারলাম না কেন।’ এরপর আরেকটি টুইটে সব ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে নেইমার বলেন, ‘ভিএআর আমার আগ্রাসী আচরণটাই খুব সহজে দেখা গেল। ওই বর্ণবিদ্বেষী ফুটবলার যে আমাকে বাঁদর বলে গালি দিল, এখন আমি সে ছবিটা দেখতে চাই। আমি এখন সেটা দেখতে চাই। কী হলো, দেখাও। আমাকে তো ঠিকই শাস্তি দেওয়া হলো, মাঠ থেকে বের করে দেওয়া হলো; এখন ওদের শাস্তি হবে না? কী ব্যাপার?’

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »