Ultimate magazine theme for WordPress.

‘মেসি-রোনালদোর পর নেইমার-এমবাপেই সেরা’ ।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে হেরে যাওয়ায় আসেনি ইউরোপিয়ান ট্রেবল। দুজন মিলে করেছেন মোট ৪০ গোল (নেইমার ১৯ ও এমবাপে ২১)।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা খেলার খবর ♦

গত মৌসুমের মাঝামাঝি সময় থেকেই শোনা যাচ্ছিল, ফ্রেঞ্চ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) দুই বড় তারকা নেইমার ও এমবাপে নতুন মৌসুমে ক্লাব ছেড়ে দেবেন। গুঞ্জন ছিলো, নেইমার ফিরে যাবেন বার্সেলোনায় এবং এমবাপে যোগ দেবেন স্পেনের আরেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে।

কিন্তু ২০১৯-২০ মৌসুমের উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে পিএসজি রানার্সআপ হওয়ার পর বদলেছে দৃশ্যপট। দুই বড় তারকাকেই দলে রেখে দিতে সমর্থ হয়েছেন ক্লাবটির স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো। তার মতে, বর্তমান সময়ে মেসি-রোনালদোর পর নেইমার-এমবাপেই সেরা।

মূলত এ দুজনের নৈপুণ্যেই সবশেষ মৌসুমে ঘরোয়া ট্রেবল জিতেছে পিএসজি। চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে হেরে যাওয়ায় আসেনি ইউরোপিয়ান ট্রেবল। দুজন মিলে করেছেন মোট ৪০ গোল (নেইমার ১৯ ও এমবাপে ২১)। মেসি-রোনালদো যুগের পর নেইমার-এমবাপেই রাজত্ব করবেন; এমন সম্ভাবনার কথা বলেছেন অনেকেই।তাদের সঙ্গে এক সুরে পিএসজির স্পোর্টিং ডিরেক্টর বলেছেন, ‘সকলের কাছে সবকিছু পরিষ্কার। আমরা তাদের দুজনকে নিয়েই এগুতে চাই, তাদের দুজনকেই চাই আমরা। তাদের মতো দুই খেলোয়াড় এক দলে থাকা অনেক বড় বিষয়। মেসি ও রোনালদো তাদের নিজেদের ক্লাবে একাই ছিল। আমাদের দলে দুজন আছে যারা মেসি-রোনালদোর পর বিশ্বসেরা।’এসময় দলের কোচ থমাস টুখেলকে প্রশংসায় ভাসিয়ে লিওনার্দো আরও বলেন, ‘টুখেন দুর্দান্ত কাজ করেছে। আমাদের ইতিহাসের সেরা মৌসুম ছিল এটি। আমাদের এখনও দশ মাসের চুক্তি রয়েছে। সত্যি বলতে, যখন আমি এসেছি, চাইলে তাকে রাখতে পারতাম আবার বাদও দিতে পারতাম। আমি তাকে চিনি। সামনের বছর আরও ভালো করার আশায় আছি।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »