Ultimate magazine theme for WordPress.

লাতিন আমেরিকার একটি নেতৃস্থানীয় শিল্পোন্নত দেশ চিলি

চিলি বিশ্বের বৃহত্তম তামা উৎপাদক ও রপ্তানিকারক দেশ। এছাড়াও দেশটি ফলমূল ও শাকসবজি, ওয়াইন রপ্তানি করে।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ডেস্ক : 

লাতিন আমেরিকার দেশ চিলি। পূর্বে আন্দিজ পর্বতমালা ও পশ্চিমে প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝে লম্বা ফিতার মতো প্রসারিত ভূখন্ড চিলি।

এর উত্তরে পেরু, উত্তর-পূর্বে বলিভিয়া, পূর্বে আর্জেন্টিনা ও ড্রেক প্যাসেজ।

চিলি ১৬শ শতক থেকে স্পেনের একটি উপনিবেশ ছিল। ১৯শ শতকের শুরুর দিকে এটি স্বাধীনতা লাভ করে। চিলিতে ধনী-
দরিদ্রের বৈষম্য প্রকট।

মহাদেশে সমৃদ্ধ ও স্থিতিশীল দেশগুলোর একটি চিলি। ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত চিলিতে কোন সামরিক অভ্যুত্থান ঘটেনি, যা ছিল লাতিন আমেরিকার অন্যান্য দেশগুলির তুলনায় ব্যতিক্রম।

১৯৭৩ সালে এক সামরিক জান্তা ক্ষমতা দখন করে। এবং ১৯৮৯ সালে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের আগ পর্যন্ত চিলি শাসন করে। তবে অগাস্টো পিনোশের ১৭ বছর শাসনকালে দেশটিতে অন্তত তিন হাজার লোক নিহত বা নিঁখোজ হয়।

২১ শতকের শুরুতে এসেও চিলি সামরিক শাসনের দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব কাটিয়ে ওঠার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

২০১০ সালে ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা প্রায় দুই দশকের বামপন্থী শাসনের অবসান ঘটিয়ে ক্ষমতায় আসেন। ২০১৪ সালে বর্তমান প্রেসিডেন্ট মিশেল বাসেলেতের কাছে পরাজিত হন তিনি।

লাতিন আমেরিকার একটি নেতৃস্থানীয় শিল্পোন্নত দেশ। এর অর্থনীতি খনন শিল্প ও কৃষিভিত্তিক। চিলি বিশ্বের বৃহত্তম তামা উৎপাদক ও রপ্তানিকারক দেশ। এছাড়াও দেশটি ফলমূল ও শাকসবজি, ওয়াইন রপ্তানি করে।

আঞ্চলিক রাজনীতিতেও দেশটির প্রভাব আছে। যদিও প্রতিবেশি রাষ্ট্র পেরু ও বলিভিয়ার সঙ্গে দেশটির সম্পর্ক খুব একটা ভাল নয়।

এক নজরে চিলি

সরকারি নাম: চিলি প্রজাতন্ত্র।

রাজধানী: সান্তিয়াগো।
সরকার পদ্ধতি: প্রেসিডেন্ট শাসিত সাংবিধানিক প্রজাতন্ত্র।
আইনসভা: জাতীয় কংগ্রেস।
উচ্চ কক্ষ: সিনেট।
নিম্নকক্ষ: চেম্বার অব ডেপুটিস।
আয়তন: ৭ লাখ ৫৬ হাজার ৯৬ বর্গকিলোমিটার।
জনসংখ্যা: ১ কোটি ৮০ লাখ ছয় হাজার ৪০৭ জন।
ঘনত্ব: প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২৪ জন।
মুদ্রা: পেসো।
প্রধান ধর্ম: খ্রিস্টধর্ম।

প্রধান ভাষা: স্প্যানিশ।
জাতিসংঘে যোগদান: ২৪ অক্টোবর,১৯৪৫ সালে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »