Ultimate magazine theme for WordPress.

মাথাব্যথা ও মাইগ্রেন নিয়ে পরামর্শ

মাথাব্যথার সমস্যাকে আমরা খুব একটা বড় করে দেখি না। তবে প্রচণ্ড যন্ত্রণার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে মাথাব্যথা।

0

©ক্রাইম টিভি বাংলা ডেস্ক: 

মাথাব্যথা কেন হয়?

চোখ, কান, নাক ও চোয়ালের জয়েন্টে সমস্যা, দুশ্চিন্তা, ব্রেইন টিউমার, মাইগ্রেন, ঘুম কম হওয়া এবং দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারে বসে থাকাসহ অনেক কারণে মাথাব্যথা হতে পারে। তবে মস্তিষ্কের পর্দা বা মেনিনজেসে কোনো সমস্যা হলে মাথার হাড়ের মধ্যকার সাইনাসে প্রদাহ (সাইনোসাইটিস) হলে কিংবা মস্তিষ্কের রক্তনালিতে কোনো সমস্যা দেখা দিলে মাথাব্যথা হয়ে থাকে।

করোনা রোগীও নানা কারণে মাথাব্যথায় ভুগতে পারেন। শরীরে নানা জীবাণুর সংক্রমণেই হতে পারে মাথাব্যথা।

মাইগ্রেন কী?

মাইগ্রেনের ব্যথা সাধারণত কপালের এক পাশে হয়ে থাকে। আর এই ব্যথা ধীরে ধীরে ব্যথা ছড়িয়ে পড়তে পারে। সঙ্গে থাকতে পারে বমিভাব কিংবা বমি, আলো বা শব্দে খারাপ লাগা। ৪ থেকে ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যথা থাকতে পারে।

মাইগ্রেন সমস্যা হলে চোখের সামনে আলোজাতীয় কিছু দেখা, শরীরের এক পাশ ঝিনঝিন করার সমস্যা হতে পারে।

পনির, চকলেট, কফি, অনিদ্রা, দুশ্চিন্তা, দুর্গন্ধ, দীর্ঘসময় খালি পেটে থাকা, অতিরিক্ত আলো বা রোদ কিংবা খুব কম আলো, অতিরিক্ত শব্দ কানে এলে এ সমস্যা হতে পারে।

কী করবেন

তবে মাইগ্রেন রোগীরা জানেন কী সমস্যা হলে তার মাথাব্যথা হয় তা এড়িয়ে চলতে হবে।

মাথাব্যথা হলে আমরা সাধারণ নিউরোলজিস্টের শরণাপন্ন হয়ে থাকেন। তবে এর আগে একবার চক্ষু বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।

লেখক:
ডা. নুজহাত চৌধুরী
চক্ষু বিশেষজ্ঞ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »