Ultimate magazine theme for WordPress.

ব্রাজিলের করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোর ‘কোনো দায় দেখছেন না’ ব্রাজিলের প্রায় অর্ধেক লোক

করোনাভাইরাস মহামারীতে ব্রাজিলে এক লাখেরও বেশি লোক মারা গেলেও এতে প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোর ‘কোনো দায় দেখছেন না’ ব্রাজিলের প্রায় অর্ধেক লোক, সাম্প্রতিক এক জরিপে এমন চিত্র উঠে এসেছে।

0

ক্রাইম টিভি বাংলা ব্রাজিল ডেস্ক:

কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পর বিশ্বের দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল; জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৭ হাজার ২৩২ জন লোকের।

ব্রাজিলীয় জরিপ সংস্থা দাতাফোলয়ার করা নতুন এক জরিপের ফলাফল শনিবার দেশটির ফোলয়া ডি সাও পাওলো সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে, এতে বলা হয়েছে মৃতের সংখ্যার জন্য ১০ শতাংশ লোক বোলাসোনারোকে দায়ী মনে করলেও ৪৭ শতাংশ লোক তাকে মোটেই দায়ী বলে ভাবছেন না।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে ব্রাজিলের অবস্থাই সবচেয়ে নাজুক। আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট কোভিড-১৯ রোগী বাংলাদেশের স্থানীয় সময় রোববার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ৩৩ লাখ ১৭ হাজার ৯৬ জন বলে জানাচ্ছে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান।

এই মহামারী মোকাবেলায় বোলসোনারোর ভূমিকার ব্যাপক সমালোচনা করেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। কট্টর ডানপন্থি এই প্রেসিডেন্ট করোনাভাইরাস মোকাবেলায় কার্যকারিতার প্রমাণ ছাড়াই ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারের জন্য চাপ দিয়ে আসছেন। তার পরামর্শের বিরোধিতা করায় এ পর্যন্ত দুই জন স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে পরিবর্তন করেছেন এবং ব্রাজিলিয়ানদের লকডাউন বিধিনিষেধের বিরোধিতা করতে উৎসাহিত করার পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে থাকলেও তাতে কোনো গুরুত্ব দেননি।

বোলসোনারো নিজেও এবং তার পরিবারের কয়েকজন সদস্যও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তার বর্তমান স্ত্রী মিশেইলি বোলসোনারোও জুলাইয়ের শেষ দিকে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং মিশেইলির দাদী গত সপ্তাহে এ ভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ এ ভুগে মারা গেছেন।

বোলসোনারোর চতুর্থ সন্তান ২২ বছর বয়সী জাইর হেননানেরও করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে বলে শনিবার ইনস্টাগ্রামে জানিয়েছেন তার মা বোলসোনারোর দ্বিতীয় স্ত্রী ক্রিশ্চিনা।

“সে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন গ্রহণ করছে, তার অবস্থা ভালো এবং শিগগিরই সুস্থ হয়ে উঠবে,” নিজের পোস্টে বলেছেন ক্রিশ্চিনা।

দাতাফোলয়ারের একই জরিপে দেখা গেছে, বোলসোনারো বর্তমানে তার প্রশাসনের সর্বোচ্চ জনপ্রিয়তার রেটিং উপভোগ করছেন। জুনে ৩২ শতাংশ ব্রাজিলিয়ান তার মেয়াদকে খুব ভালো অথবা ভালো বললেও এখন এমন লোকের হার বেড়ে ৩৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

নিম্ন আয়ের মানুষ ও অনানুষ্ঠানিক কর্মীদের জন্য সরকারের জরুরিভিত্তিতে প্রদান করা অর্থ তার জনপ্রিয়তা এমন বৃদ্ধির কারণ হতে পারে বলে জরিপের ফলাফলের প্রতিবেদনে দেওয়া ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে। এই নগদ সহায়তার কর্মসূচী সেপ্টেম্বরে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বর্তমানে তা বাড়ানোর কথা বিবেচনা করছে সরকার।

জরিপটি পরিচালনার জন্য ১১ থেকে ১২ অগাস্ট পর্যন্ত ২০৬৫ জনের সাক্ষাৎকার নিয়েছে দাতাফোলয়া। এই জরিপে উপরের বা নিচের দিকে দুই শতাংশ পয়েন্ট পর্যন্ত ত্রুটি থাকতে পারে বলে জানিয়েছে তারা।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »