Ultimate magazine theme for WordPress.

উরুগুয়ের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে পর্যটন শিল্প

উরুগুয়েতে নগরায়নের হার উচ্চ। প্রায় ৯০% জনগণ শহরে বাস করেন। ৪০%-এরও বেশি লোক রাজধানী মোন্তেবিদেওতে বাস করেন। উরুগুয়ের বেশির ভাগ লোক ইউরোপীয় বংশোদ্ভূত।

0

ক্রাইম টিভি বাংলা / আলমগীর দেওয়ান আকাশ—

উরুগুয়ে দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার মধ্যে অবস্থিত একটি দেশ। এটি দক্ষিণ আমেরিকার দ্বিতীয় ক্ষুদ্রতম দেশ । দেশটির সরকারি নাম পূর্ব উরুগুয়ে প্রজাতন্ত্র রেপুব্লিকা ওরিয়েন্তাল্‌ দেল্‌ উরুয়াই। উপকূলীয় শহর মোন্তেবিদেও উরুগুয়ের রাজধানী ও প্রধান অর্থনৈতিক কেন্দ্র।

১৯শ শতকের শুরু পর্যন্ত উরুগুয়ে দক্ষিণ আমেরিকায় স্পেনীয় সাম্রাজ্যের একটি অংশ ছিল। এরপর কিছুকাল এটি পর্তুগিজদের অধীনে ছিল। ১৮২৮ সালে দেশটি স্বাধীনতা লাভ করে। উরুগুয়ের সংস্কৃতিতে স্পেনীয় ঔপনিবেশিক ঐতিহ্যের বড় প্রভাব পড়েছে। এখানকার সরকারি ভাষা স্পেনীয় ভাষা।

উরুগুয়েতে নগরায়নের হার উচ্চ। প্রায় ৯০% জনগণ শহরে বাস করেন। ৪০%-এরও বেশি লোক রাজধানী মোন্তেবিদেওতে বাস করেন। উরুগুয়ের বেশির ভাগ লোক ইউরোপীয় বংশোদ্ভূত।

পর্যটন শিল্প উরুগুয়ের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। দেশটির ছবির মতো সুন্দর সমুদ্রসৈকতগুলি সারা বিশ্বের পর্যটকেরা বেড়াতে আসেন। কৃষিকাজ ও গবাদি পশু পালন গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »