Ultimate magazine theme for WordPress.

মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবেন বিমানসংস্থার যাত্রীরা

সিরিয়ার আকাশে মার্কিন এফ-১৫ যুদ্ধবিমানের মহড়ার কথা স্বীকার করলেও সেটি ইরানি বিমানের থেকে নিরাপদ দূরত্বে ছিল বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

0

মার্কিন যুদ্ধবিমানের ধাওয়ায় ভুক্তভোগী বিমানসংস্থা মাহান এয়ারলাইনসের যাত্রীরা ইরানের আদালতে মার্কিন সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবেন।
শনিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির বিচার বিভাগ।

ইরানের আধা-সরকারি বার্তাসংস্থা আইএলএনএ’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে দেশটির বিচার বিভাগের মানবাধিকার অফিসের প্রধান আলী বাঘেরি-কানি বলেন, মাহান এয়ারের ১১৫২ ফ্লাইটের ইরানি বা অ-ইরানি সব যাত্রী ‘সন্ত্রাসী’ মার্কিন সেনাবাহিনীর কমান্ডার, অপরাধী, সুপারভাইজার ও ডেপুটিদের বিরুদ্ধে ইরানের আদালতে মানসিক এবং শারীরিক ক্ষতির অভিযোগে মামলা করতে পারবেন।

ইরানের বেসরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা মাহান এয়ারের ওই ফ্লাইটটি বৃহস্পতিবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতের উদ্দেশে তেহরান ত্যাগ করে।
সন্ধ্যার দিকে বিমানটি সিরিয়ার তাল আন্ফ অঞ্চলে পৌঁছালে এর কাছাকাছি বিপজ্জনক মহড়া চালায় দু’টি যুদ্ধবিমান।
এ অবস্থায় সংঘর্ষ এড়াতে ইরানি পাইলট হঠাৎ করে যাত্রীবাহী বিমানটির উচ্চতা কমিয়ে নিচে নামিয়ে আনেন। এসময় ঝাঁকিতে বেশ কয়েক যাত্রী আহত হন।
প্রথমে যুদ্ধবিমান দু’টি ইসরায়েলের বলে দাবি করলেও পরে এর অন্তত একটি যুক্তরাষ্ট্রের বলে জানায় ইরান।

সিরিয়ার আকাশে মার্কিন এফ-১৫ যুদ্ধবিমানের মহড়ার কথা স্বীকার করলেও সেটি ইরানি বিমানের থেকে নিরাপদ দূরত্বে ছিল বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা আইআরআইবি প্রকাশিত ভিডিওতে বিমানের জানালা দিয়ে কাছাকাছি যুদ্ধবিমান উড়তে দেখা যায়।
ওই ভিডিওতে এক যাত্রীকে রক্তাক্ত অবস্থায়ও দেখা গেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »