Ultimate magazine theme for WordPress.

খাওয়ার পরে যে অভ্যাসে মারাত্মক ক্ষতি

চিকিত্‍সকদের মতে, ফল খাওয়ার আদর্শ সময় হলো, খাওয়ার ২ ঘণ্টা পরে অথবা খাওয়ার দু ঘণ্টা আগে।

0

নিয়মিত ব্যায়াম করেও শরীরের মেদ ঝরাতে পারছেন না অনেকে। এ কারণে বিরক্ত হয়ে  ব্যায়ােই ছেড়ে দেন কেউ কেউ। তবে মেদ ঝরাতে ব্যায়ামের পাশাপাশি সঠিক খ্যাদ্যাভাস এবং কিছু নিয়ম মানা খুবই জরুরি বলে মত বিশেষজ্ঞদের। তারা বলছেন, খাওয়ার পর পরই অনেকেই এমন কিছু কাজ করেন, যা শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর। যেমন-

ঘুম: খাওয়ার পরে ঘুমানো একেবারেই উচিত নয়। খাওয়ার পরই ঘুমালে হজমের সমস্যা হয়। এতে পেটে গ্যাসের তৈরি হয়। টক্সিন জমতে থাকে শরীরে। তাই খাওয়ার অন্তত ১ থেকে ২ ঘণ্টা পর ঘুমানো উচিত।
ধূমপান: যারা নিয়মিত ধূমপান করেন, খাওয়ার পর তাদের একটা সিগারেট টান দেয়ার অভ্যাস আছে। ধূমপান এমনিতেই ক্ষতিকর। খাওয়ার পর ধূমপান করলে তা রক্তে বিষ ঢোকানোর মতো হয়। চিকিত্‍সকরা বলছেন, খাওয়ার পর একটি ধূমপান মানে ১০টি ধূমপানের সমান ক্ষতি হওয়া। এতে রক্তে অক্সিজেনের সঙ্গে দ্রুত মিশে যায় নিকোটিন। ফলে বিষক্রিয়া শুরু হয়ে যায়।
ফল খাওয়া: চিকিত্‍সকদের মতে, ফল খাওয়ার আদর্শ সময় হলো, খাওয়ার ২ ঘণ্টা পরে অথবা খাওয়ার দু ঘণ্টা আগে। তা না হলে গ্যাস, বদ হজমের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। এ কারণে খাওয়ার পর পরই ফল খাওয়া উচিত নয়।
সাঁতার: ব্যায়ামের মধ্যে সবচেয়ে কার্যকরী হচ্ছে সাঁতার। কিন্তু খাওয়ার পরই সাঁতার কাটা মারাত্মক ক্ষতিকর। কারণ পানিতে নামার পরই শরীরে তাপমাত্রার হেরফের হয়। আসলে তখন সব শক্তি খাবারটিকে হজম করানোর কাজে লেগে থাকে। তাই খাওয়ার পরে কখনোই সাঁতার কাটা উচিত নয়।
ব্যায়াম: খাওয়ার পরই ব্যায়াম করা মারাত্মক ক্ষতিকর। চিকিত্‍সকরা বলছেন, খাওয়ার পরে ধীরে ধীরে হাঁটা ভালো। কিন্তু কখনোই অতিরিক্ত জোরে হাঁটা ও ব্যায়াম করা উচিত নয়।
চা পান: এটিও একটি বদভ্যাস। অনেকেই পেট ভরে খেয়ে, তারপর চায়ে চুমুক দেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, চায়ে থাকা ক্যাফেইন হজম ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ফলে শরীরে বাড়তি টক্সিন জন্ম নেয়। চা খাওয়া উচিত খাওয়ার অন্তত এক ঘণ্টা পরে।
সূত্র: নিউজ এইট্টিন

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »