Ultimate magazine theme for WordPress.

অক্সফোর্ডের পর ফাইজার-বায়ো এন টেকের ভ্যাকসিনেও সাফল্য

0

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির পাশাপাশি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কোম্পানি ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বায়ো এন টেকের পক্ষ থেকেও তাদের ভ্যাকসিন নিরাপদ বলে জানানো হয়েছে। গতকাল সোমবার ফাইজারের পক্ষ থেকে তাদের পরীক্ষামূলক কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ফাইজার জানায়, তাদের ভ্যাকসিন পরীক্ষা-নিরীক্ষায় রোগীর দেহে নিরাপদ বলে প্রমাণিত হয়েছে এবং অ্যান্টিবডি তৈরি করছে। এ ছাড়া করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে উচ্চমাত্রার টি-সেল প্রতিক্রিয়াও দেখিয়েছে ফাইজারের ভ্যাকসিন।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফাইজার ও বায়ো এন টেকের ভ্যাকসিন ইতিবাচক ফল দেখানোর ঘোষণা আসায় তাদের শেয়ারের দাম বেড়ে গেছে। বায়ো এন টেকের শেয়ারের দাম বেড়েছে ১২ শতাংশ আর ফাইজারের শেয়ারের দাম বেড়েছে ৩ দশমিক ৬ শতাংশ।

মহামারি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরিতে বিশ্বব্যাপী ১৫০টিরও বেশি প্রকল্প চলছে। মানুষের শরীরে প্রয়োগ করে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর্যায়ে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না ও অ্যাস্ট্রাজেনেকাসহ ২৩টি প্রতিষ্ঠান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Translate »